প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক ভাবসম্প্রসারণ | প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক | ভাবসম্প্রসারণ

প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক ভাবসম্প্রসারণ | প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক | ভাবসম্প্রসারণ

 
প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক  ভাবসম্প্রসারণ | প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক | ভাবসম্প্রসারণ

প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক 

 ভাব - সম্প্রসারণ : নতুন কোনাে কিছু আবিষ্কার ও উদ্ভাবনের মূল চাবিকাঠি হলাে প্রয়ােজন । প্রয়ােজনের তাগিদেই মানুষ নিত্যনতুন উদ্ভাবনে ব্যাপৃত হয় । সব সৃষ্টির পেছনেই একটি রহস্য বা কারণ রয়েছে । এ জগতে কোনাে কিছু আকস্মিকতার সৃষ্টি নয় । একদিন আমাদের পূর্বপুরুষেরা বনে জঙ্গলে বাস করত । চকমকি দিয়ে আগুন জ্বালাতাে । বৈজ্ঞানিকের চমকপ্রদ উদ্ভাবন তখন অজ্ঞাত ছিল । মানুষের দৈনন্দিন কাজের প্রয়ােজনে সভ্যতার ক্রমবিকাশ ঘটেছে । তার চিন্তাভাবনা বেড়েছে । মানুষের প্রয়ােজনীয়তার কথা ভেবে বিজ্ঞানের নানা আবিষ্কার বা উদ্ভাবন ঘটেছে । কালক্রমে আগুন আবিষ্কার হলে মানুষ কাঁচা মাংস আগুনে ঝলসে খেতে শুরু করে । জীবজন্তুর আক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়ার প্রয়ােজনে মানুষ ঘর বাঁধতে শিখে এবং নারী - পুরুষ অগ্নিকে সাক্ষী করে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয় ও দাম্পত্য জীবন শুরু করে । এভাবে মানুষ সমাজবদ্ধ জীবন যাপনের শুভ সূচনা করে * তখন পুরুষেরা ফসল ফলানাের এবং নারীরা সুস্বাদু রান্নার বিভিন্ন কৌশল আয়ত্ত করে ফেলে । এভাবে মানুষ ক্রমান্বয়ে প্রয়ােজনের তাগিদে নগর সভ্যতার পত্তন করে এবং জ্ঞান - বিজ্ঞানের পথ বেয়ে বর্তমান সভ্যতা ও উন্নতির ভিত গড়ে তােলে । কালক্রমে একেক সময় একেক জিনিসে অভাবের কথা বুঝতে পেরেছে । প্রয়ােজনের কথা গুরুত্বের সঙ্গে উপলব্ধি করেছে । অন্ধকার দূর করা প্রয়ােজন বিধায় বিদ্যুৎ উদ্ভাবন করেছে । যাতায়াতের সুষ্ঠু ব্যবস্থা ছিল না , বাহন ছিল না ; রাস্তাঘাট তৈরি করেছে , স্টিম ইঞ্জিন , রেলগাড়ি , মােটরগাড়ি , এরােপ্লেন এবং আরও অনেক যান উদ্ভাবন করেছে । দূরালের মানুষের কথা শােনা দরকার , পর্দায় ছবি দেখা দরকার ; উদ্ভাবন করা হলাে চলচ্চিত্র , টেলিফোন , টেলিস্কোপ । টেলিগ্রাম , টেলিভিশন , ভি.সি.আর , ইত্যাদি । প্রয়ােজনীয়তা না থাকলে এগুলাে উদ্ভাবনের কথা চিন্তাও করা যেত না । আলাে জ্বালানাের দরকার তাই দেয়াশলাই , লাইটার উদ্ভাবন করেছে । আবার রােগ , শােক , জরা - ব্যাধিকে দূরে নিক্ষেপ করার জন্য এক্সরে , আলট্রাসনােগ্রাফির উদ্ভাব করেছে । নানা দুরারােগ্য ব্যাধি ও ওষুধ আবিষ্কার করার প্রয়ােজনের কথাও মনে হয়েছে । ফলে আবিষ্কার করেছে পেনিসিলিন , ক্লোরােমাইসি ইত্যাদি । এভাবে চলছে একের পর এক আবিষ্কার । প্রয়ােজন না থাকলে মানুষ কিছুই আবিষ্কার করার প্রয়াস পেত না । তাই এটি নিঃসন্দেহে বলা যায় , প্রয়ােজনই মানুষকে নতুন নতুন জিনিস ও কৌশল উদ্ভাবনে অনুপ্রাণিত করেছে এবং তাকে উন্নতির স্বর্ণ শিখরে পৌছে দিয়েছে ।

টাগ: প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক  ভাবসম্প্রসারণ, প্রয়ােজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক, ভাবসম্প্রসারণ

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png