কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাবসম্প্রসারণ | কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে ভাবসম্প্রসারণ | কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে হেন কালে গগনেতে উঠিলেন চাদা ভাবসম্প্রসারণ

কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাবসম্প্রসারণ | কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে ভাবসম্প্রসারণ | কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে হেন কালে গগনেতে উঠিলেন চাদা ভাবসম্প্রসারণ

 

কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাবসম্প্রসারণ |  কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে  ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে ভাবসম্প্রসারণ | কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে  ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে   হেন কালে গগনেতে উঠিলেন চাদা ভাবসম্প্রসারণ

কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে
 ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে 

 হেন কালে গগনেতে উঠিলেন চাদা 

কেরােসিন বলে উঠে এসাে মাের দাদা

ভাব - সম্প্রসারণ : দরিদ্রের আত্মীয়তা কেউই স্বীকার করতে চায় না । মনােভাব সবারই উধ্বমুখী । জগতের সাধারণ মানুষের চরিত্রের একটা দিক এ কয়টি ছত্রের মধ্যে অতি চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে । সামাজিক পদমর্যাদা ও আভিজাত্যের প্রতি মানুষের একটা দুর্বলতা মিশ্রিত মােহ আছে । তাই আত্মীয়স্বজন যদি দরিদ্র হয় , তাহলে এক শ্রেণির আত্মদন্ডী মানুষ সে হতভাগ্যের সঙ্গে কোনােরূপ সম্বন্ধ স্বীকারে কুণ্ঠা অনুভব করে । পৃথিবীতে প্রত্যেক মানুষই নিজ থেকে শ্রেষ্ঠ মানুষের সঙ্গে আত্মীয়তা গড়ে তুলতে চায় । দারিদ্রগ্রস্ত আত্মীয়কে সে অত্যন্ত লজ্জার বিষয় ও তার সামাজিক পদমর্যাদার ক্ষতিকারক বলে মনে করে । এ কারণে দরিদ্রের আত্মীয়তাকে সে যথাসাধ্য ঢেকে রাখার প্রয়াস পায় । এমনকি কোনাে মুহূর্তে যদি তা প্রকাশ পায় এই আশঙ্কায় উক্ত আত্মীয়কে সে ভীতি প্রদর্শন করতে কুণ্ঠাবােধ করে না । উদাহরণস্বরূপ কবি কেরােসিনের প্রদীপ ও মাটির প্রদীপের বিবাদের কথা বর্ণনা করেছেন । কেরােসিন শিখা এবং মাটির প্রদীপ উভয়েই আলাে বিতরণ করে । সুতরাং কাজের দিক থেকে দুজনেই এক ও অভিন্ন । কিন্তু কেরােসিন শিখার আলাে উজ্জ্বল আর মাটির প্রদীপের আলাে ক্ষীণ । এজন্য কেরােসিন শিখা নিজের উজ্জ্বল আলাের জন্য গর্বিত হয়ে মাটির প্রদীপকে স্বগােত্রীয় বলে স্বীকার করতে অপমানবােধ করে । কিন্তু আকাশে যখন চাদ ওঠে আলাের বন্যা নিয়ে তখন উভয়েই ম্রিয়মাণ চাদের আলাের কাছে । আর তার সাথে কেরােসিন শিখা আত্মীয়তা করতে দ্বিধাবােধ করে না । এরূপ ব্যবহার কেরােসিন শিখার হীনম্মন্যতারই পরিচায়ক । কেননা আকাশে নক্ষত্রমালা , গ্রহ , উপগ্রহ প্রভৃতি জ্যোতিষ্কমণ্ডলীর কোনাে ভেদাভেদ নেই , কারণ তারা উচ্চ শ্রেণিভুক্ত । আমাদের সমাজেও উঁচু - নিচু ভেদাভেদ গড়ে ওঠে । তবে মার্জিত ব্যক্তিরা শ্রেণিভেদ কিছু মনে করেন না । তারা সবাইকে আপন মনে করেন এবং তাই করা উচিত । সব মানুষই সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টি । সবাই সবার আত্মার আত্মীয় । ধন - দৌলতের গর্বে গৌরবান্বিত না হয়ে অসহায় গরিবকে ঘৃণা না করে একসাথে মিলেমিশে বাস করা সবারই কর্তব্য ।

টাগ: কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে ভাবসম্প্রসারণ, কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে  ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে ভাবসম্প্রসারণ, কেরােসিন শিখা বলে মাটির প্রদীপে  ভাই বলে ডাক যদি দেব গলা টিপে   হেন কালে গগনেতে উঠিলেন চাদা ভাবসম্প্রসারণ

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post
আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png