মোবাইলে অনলাইনে ring id দিয়ে টাকা ইনকাম | টাকা ইনকাম করার অ্যাপ | ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম

মোবাইলে অনলাইনে ring id দিয়ে টাকা ইনকাম | টাকা ইনকাম করার অ্যাপ | ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম

 

মোবাইলে অনলাইনে আয় অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ring id দিয়ে টাকা ইনকাম টাকা ইনকাম করার অ্যাপ মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করুন ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম

    মোবাইলে অনলাইনে আয় 

    টাইম অফ বিডির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা এবং সালাম আসসালামু আলাইকুম রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আপনারা সবাই কেমন আছেন ? আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আপনারা অনেকেই হয়ত জানেননা ফেসবুক এবং অনলাইন থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। আর তাই আজকে আমাদের পোস্টে আমরা এগুলো সম্পর্কে আলোচনা করব।আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি তৈরি করা হয়েছে কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায় এর সম্পর্কে । আমাদের আজকের এই পোস্টের যা যা থাকছে সেগুলো হলো মোবাইলে অনলাইনে আয়, অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে, ring id দিয়ে টাকা ইনকাম, টাকা ইনকাম করার অ্যাপ, মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করুন, ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম ।আশা করছি আপনারা পুরো পোস্টটি ধৈর্য সহকারে পড়বেন এবং আপনারা সঠিক তথ্যটি পাবেন।


    অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে 

    মোবাইলে অনলাইনে আয় ২০২১

    বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষই চায় অনলাইন থেকে ইনকাম করতে। কিন্তু সমস্যা হল তাদের কম্পিউটার না থাকার কারণে ইনকাম করতে পারেনা। কিন্তু আপনি জেনে খুশি হবেন বর্তমানে মোবাইলে অনলাইনে আয় করা যায়। অতএব চিন্তার কোন কারণ নেই , এই ডিজিটাল যুগে আপনার স্বপ্ন পূরণ হবে। আমি আপনাদেরকে এমন কিছু উপায় বলে দেবো সেগুলো ফলো করলে ১০০% লাইফ টাইম ইনকাম করতে পারবেন।

    বর্তমানে অধিকাংশ মানুষ পিটিসি সাইট অথবা অ্যাপস এর পিছনে পড়ে, সেখান থেকে অধিকাংশ মানুষ ধোকা খায় । অথবা অনেকে ধোঁকা না খেলেও অনেক সময় ব্যয় করে কিন্তু ইনকাম হয় খুব কম। অতএব আমি আপনাদেরকে মোবাইলে অনলাইনে আয় করার এমন কিছু মাধ্যম বলবো যার দ্বারা আপনি কখনো ধোঁকা খাবেন না। লাইফ টাইম ইনকাম করতে পারবেন।

    মোবাইলে অনলাইনে আয় করার পদ্ধতি

    মোবাইলে অনলাইনে আয় করার অনেক পদ্ধতি রয়েছে। পদ্ধতি জানার আগে কিছু বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে ,অনলাইনে ইনকাম করা এতটা সহজ নয় যা আমরা ভাবি। অনলাইনে ইনকাম করার জন্য (১)পরিশ্রম করতে হবে (২) ধৈর্য ধারণ করতে হবে (৩) মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। (৪) সময় দিতে হবে ।


    ring id দিয়ে টাকা ইনকাম 

    আপনারা অনেকেই হয়তো জানেন না যে রিং আইডি দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়। আর তাই আপনাদের সুবিধার্থে আমরা রিং আইডি তে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি আজকের এই পোস্টে আশা করছি আপনার পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন।

    Ring_ID... প্রতি একাউন্ট এ ৫০ টাকা।

    আপনারা যারা যারা এখনো Ring ID App এ একাউন্ট করেননি দ্রুত একাউন্ট করে নেন। আর পাবেন প্রতি একাউন্টে 50 টাকা এবং 3 ringbit ((রিং আইডি কোম্পানির শেয়ার। 

    আপনারা যারা এখনো ring ID একাউন্ট করেন নি দ্রুত একাউন্ট করে নিন। নতুন Ring ID অ্যাকাউন্ট খুললেই 50 tk Bonus

    একাউন্ট_করার_নিয়মঃ

    1/ প্রথমে আপনার Play Store অথবা App store থেকে ring ID Apps টা ডাউনলোড করে নিবেন এবং App টা ওপেন করুন।

    2/ আপনার মোবাইল নাম্বার দিন, আপনার সিমে ৪ ডিজিটের ভেরিফাই কোড যাবে কোডটা বসিয়ে দিবেন।

    3/ আপনার নাম দিন।

    4/ পাসওয়ার্ড দিতে বলবে Skip করে দিন।

    5/ তারপর আপনাকে রেফার কোড দিতে বলবে Add Reffer এই 22855420 কোড টা দিয়ে Refer now ক্লিক করবেন এবং সাথে সাথেই 50 TK Bonus পাবেন।

    মনে রাখবেন এই রেফার কোড টা ভুল করলে আপনি কিন্তু একাউন্ট করে 50 টাকা পাবেন না।

    রেফার না করলে কিছুদিন পরেই আইডি ব্যান করে দেয় তাই অবশ্যই রেফার কোড 22855420 টা দিবেন।

     বিঃদ্র: :--- Account করে রেফার

    করলেই 20 টাকা অ্যাড হয়ে যাবে আপনার অ্যাকাউন্ট এ .. যে কোন ফোন নাম্বার দিয়ে খুলতে পারবেন। আপনার যতটি সিম আছে ততবার অ্যাকাউন্ট খুলবেন কারন প্রতিবার 20 টাকা অ্যাড হবে আপনার অ্যাকাউন্ট এ আর সাথে ৫০ টাকা বোনাস তো আছেই। কিছুদিনের মধ্যে 1000 থেকে 2000 টাকা ব্যালেন্স হয়ে যাবে রেফার করতে করতে।

    তাই যারা আগে অ্যাকাউন্ট খুলেন নাই তাড়াতাড়ি খুলে ফেলুন, রেফার এর টাকা দিয়ে কয়েন নিয়ে সেল দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

    টাকা ইনকাম করার অ্যাপ

    ফ্লেক্সিলোড অ্যাপস । এই অ্যাপসের মাধ্যমে আপনারা ঘরে বসেই অনেক টাকা ইনকাম করতে পারেন। আপনারা হয়তো অনেকেই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে চান কিন্তু হয়তো তেমন কোনো সুযোগ না পাওয়ার কারণে আপনারা টাকা ইনকাম করতে পারছেন না।আজকে আমরা আমাদের এই পোস্টে টাকা ইনকাম করার জন্য একটি অ্যাপস সম্পর্কে আলোচনা করেছি সেই অ্যাপটি হল ফ্লেক্সিলোড অ্যাপস।আপনারা যদি পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়েন তাহলে আপনারা খুব সহজেই জানতে পারবেন কিভাবে ফ্লেক্সিলোড অ্যাপ থেকে টাকা ইনকাম করা যায়।


    স্বল্পমূল্যে ডিলার ও রিটেলার একাউন্ট করা হচ্ছে

    বিশেষ দ্রষ্টব্য. ডিলার অ্যাকাউন্ট নিয়ে ঘরে বসে থেকে মাসে 10 থেকে 15 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন

    ১টি মাএ অ্যাপস দিয়ে বাংলালিংক, গ্রামীণফোন, ইস্কিটো, এয়ারটেল, রবি এবং টেলিটক মোট ৬ টি সিম এ ফ্লেক্সিলোড করুন।

    আপনার বর্তমান সিম টিকে ফ্লেক্সিলড এর অ্যাপ এ রেজিষ্টার করে দেওয়া হবে।

    আপনি যে সকল সুবিধা পাবেন

    প্রতি হাজারে ২৭ টাকা করে কমিশন(রিটেইল)

    ড্রাইভ প্যাক সেল দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

    রবি ১৯৪ টাকা মিনিট প্যাক ১০-২০ টাকা করে কমিশন পাবেন।

     এয়ারটেল ১৯৩ টাকা মিনিট প্যাক ১০-২০ টাকা করে কমিশন পাবেন।

    রবি ৪৯৯ টাকা কম্বো প্যাক এ ১০০-১২০ টাকা কমিশন পাবেন।

     এয়ারটেল ৪৪৮ টাকা কম্বো প্যাক এ ১০০-১২০ টাকা কমিশন পাবেন।

    বাংলালিংক ৩৪৯ টাকা ৩০ জিবি প্যাক এ ১৯ টাকা কমিশন পাবেন।

    বাংলালিংক ৩০৭ টাকা ৫১০ মিনিট প্যাক এ ১৫ টাকা কমিশন পাবেন।

    বাংলালিংক ১৯৯ টাকা ১৮ জিবি প্যাক এ ১৫ টাকা কমিশন পাবেন।

    ৯ টাকা ফ্লেক্সি লোড এর সুবিধা আছে, ওয়েবসাইট থেকে।

    মাসিক কোনো টার্গেট এর ঝামেলা নেই এবং কোনো প্রকার চার্জ নেই।

    লোড এর জন্যে টাকা আমাদের কাছ থেকেই নিতে হবে।

    আপনি ১০০০ টাকা অ্যাড করার জন্যে ১০২৭ টাকা পাবেন ইনস্ট্যান্ট ২.৭% বোনাস।

    অ্যাপস, ওয়েবসাইট এবং এস এম এস এর মাধ্যমে লোড দিতে পারবেন। যে কোনো মোবাইল দিয়ে লোড করা যায়।

    ২ বার করে নাম্বার, ২ বার করে পিন কোড বসানোর ঝামেলা নেই।

    আমাদের থেকে সকল সুবিধা গুলো আপনারা পাবেন।

     খরচ কম আর মোবাইল ১টির বেশি লাগছে না।

    ২৪ ঘন্টা কাস্টমার কেয়ারের সুবিধা।

    অটো ফ্লেক্সিলোড সুবিধা(সার্ভার এর মাধ্যমে)

    ৫-১৯ সেকেন্ড এর ভিতর ফ্লেক্সি যাওয়ার সুবিধা

     মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করুন

    একটি স্মার্ট ফোন থাকলেই এখন ঘরে বসেই টাকা ইনকাম করা সম্ভব। পৃথিবীতে হাজার হাজার লাখ লাখ মানুষ একটি স্মার্ট ফোন দিয়েই ঘরে বসে টাকা ইনকাম করছে। আপনারা যে যে উপায় মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন সেগুলো সম্পর্কে আমাদের আজকের এই পোস্টে আমরা আলোচনা করেছি। আপনারা যদি পুরোপুরি ধৈর্য সহকারে পড়েন তাহলে আপনারা জানতে পারবেন কিভাবে মোবাইলে টাকা আয় করা যায়।

    লেখালেখি করে মোবাইলে অনলাইনে আয় করুন

    লেখালেখি অর্থাৎ ব্লগিং করে আয় এটা অনেক প্রসিদ্ধ এবং পুরাতন একটি মাধ্যম। এখানে আপনি ২টি সিস্টেমে লেখালেখি করে মোবাইলে অনলাইনে আয় করতে পারবেন।(এক) অন্যের জন্য, বিভিন্ন ওয়েবসাইটে লেখালেখি করে আয় করতে পারবেন। (দুই ) নিজের জন্য, নিজের একটি ব্লগ সাইট তৈরি করে সেখানে লেখালেখি করে বিভিন্ন উপায়ে আয় করতে পারবেন। আসুন প্রথম বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাক।

    অন্যের জন্য বিভিন্ন বিষয়ে আর্টিকেল লিখে মোবাইলে অনলাইনে আয় করুন

    আপনি যদি ভালো ইংলিশ জানেন তাহলে ফাইবার, ফ্রিল্যান্সার, আপওয়ার্ক ইত্যাদি নানান বড় বড় সাইটে কনটেন্ট রাইটার হিসেবে মোবাইল দিয়ে আর্টিকেল লিখে মোবাইলে অনলাইনে আয় করতে পারেন। ফাইবার, ফ্রিল্যান্সার, আপওয়ার্ক এসমস্ত সাইট থেকে আপনি সারাজীবন ইনকাম করতে পারবেন। ধোকা খাওয়ার কোন সিস্টেমে নাই।

    আর যদি ইংলিশ ভালো না জানেন। তা হলেও কোন সমস্যা নেই। কেননা বর্তমানে বাংলায় বিভিন্ন সাইট রয়েছে যেখানে আপনি মোবাইল দিয়ে লেখালেখি করে অনলাইনে আয় করতে পারবেন নির্দ্বিধায়। যেমন : ট্রিকবিডি, টেকটিউনস, ইনকাম টিউন্স ইত্যাদি নানান সাইট। দ্বিতীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাক ।

    জীবনে সফলতা আনার জন্য আপনাকে কয়েকটি পদক্ষেপ নিতে-ই হবে

    ফেসবুক মার্কেটিং করে ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম করুন

    নিজেই ব্লগ তৈরি করে মোবাইলে অনলাইনে আয় করুন

    আপনি ইচ্ছা করলে blogspot.com এর মাধ্যমে ফ্রিতে নিজের ব্লগ শুরু করতে পারেন। আবার ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে টাকা খরচ করে ব্লগ সাইট তৈরি করতে পারেন। অথবা শুধু ব্লগে ডোমেইন কিনে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করতে পারেন। এইটা সবচেয়ে সহজ একটা মাধ্যম। আপনার যে টপিকটা বেশি পছন্দনীয় এবং বেশি ভালো লাগে ওই টপিকের উপর লেখালেখি করতে পারেন।

    আর এই ব্লগের মধ্যে কয়েক ভাবে ইনকাম করা যায় (১) গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে। (২) এফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে। (৩) নিজের প্রোডাক্ট বিক্রি করে। আরো নানান উপায় রয়েছে। এভাবে আপনি মোবাইলে অনলাইনে আয় করতে পারেন।


    এফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইনে মোবাইলে টাকা আয় করুন

    এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় মোবাইল থেকে খুব সহজে করা যায়। এবং অনেক লাভজনক হয়। আগে জানতে হবে এফিলিয়েট মার্কেটিং কি? এক কথায় এফিলিয়েট মার্কেটিং হল কোন কোম্পানির প্রডাক্ট বা সার্ভিস বিক্রি করে দেওয়া। এর ফলে ওই কোম্পানি আপনাকে কিছু কমিশন দেবে। আর এটা আপনি করবেন বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় মার্কেটিং করে। আর এই মার্কেটিং টা অনেক সহজ।

     ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম 

    ভিডিও দেখে কিভাবে ইনকাম করা যায় তার একটা ভিডিও নিয়ে এসেছি আপনাদের জন্য,যারা ট্রাস্ট করতে পারছেন না তাদের জন্য এই ভিডিও টা,নেক্সট ফ্রাইডে তে আমি টাকা উইথড্র এর লাইভ ভিডিও করে আপনাদের সামনে নিয়ে আসব।


    ফ্রি রেজিস্ট্রেশন - 

    https://taskpays.com/register.aspx?u=91512


     ৪৮ ডলার এ প্রতি দিন ১০ ভিডিও পার ভিডিও ১৬.৯৫ টাকা । ১২০ ডলার এ প্রতি দিন ২৪ টি ভিডিও পার ভিডিও তে পাবেন ১৬.৯৫ টাকা । ২৪০ ডলার এ পাবেন প্রতি দিন ৫০ টি ভিডিও । Advance package- ৩৬০ ডলার এ প্রতি দিন ৩০ টি ভিডিও পাবেন পার ভিডিও তে ৪২.৩৫ টাকা করে পাবেন । ৫৬০ ডলার প্রতি দিন ৫০ টি ভিডিও পাবেন পার ভিডিও তে ৪২.৩৫ টাকা করে পাবেন । ৯৮০ ডলার প্রতি দিন ৮০ টি ভিডিও পার ভিডিও তে পাবেন ৪২.৩৫ টাকা। ১৯৯০ ডলার এ প্রতি দিন ১১৭ টি ভিডিও পাবেন পার ভিডিও তে ৬৭.২৩ টাকা করে পাবেন ইনশাআল্লাহ। 


    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png