মেয়ে পটানোর উপায় টিপস কৌশলসমূহ মোবাইল ফোন এবং ফেসবুকে মেয়ে পটানো শিখুন ।,মেয়ে পটানোর টেকনিক ২০২১ ২০২২

মেয়েদের প্রেমে ফেলার উপায়,ফেসবুকে মেয়ে পটানোর সহজ উপায় | কীভাবে ফেসবুকে মেয়ে পটানো যায়,মেয়েদের প্রেমে ফেলার এস এম এস ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার সহজ উপায় ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার তাবিজ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার মন্ত্র, মেয়েদের প্রেমে ফেলার দোয়া ,মেয়েকে প্রেমে ফেলার কিছু সহজ উপায়,অপরিচিত মেয়েকে প্রেমে ফেলার উপায়,মেয়ে পটানোর টেকনিক,ফেসবুকে মেয়ে পটানোর সহজ আধুনিক উপায়,

kivabe meyeder propose korte hoy

আপনাদের মাঝে আজকে একটি খুবই ইন্টারেস্টিং টপিক নিয়ে হাজির হয়েছি।  আমাদের মধ্যে অনেকেই অনেক দিন যাবত প্রেম করতে চান কিন্তু প্রেম করার জন্য কোন মেয়ে খুঁজে পান না।  বা কোন মেয়েকে নিজের প্রেমে ফেলার চেষ্টা করে যাচ্ছেন কিন্তু পারছেন না।  আমরা আজকের পোষ্টে আপনাদের সাথে এরকম কিছু টিপস শেয়ার করবো যা ফলো করলে আপনি অবশ্যই আপনার পছন্দের মানুষটিকে আপনার প্রেমে ফেলতে পারবেন

 আপনি যদি সত্যিই প্রেম করতে চান এবং আপনার ভালোলাগার মানুষটিকে আপনার ভালোবাসার জালে আবদ্ধ করতে চান তাহলে অবশ্যই অবশ্যই আমাদের আজকের পোস্টটি আপনার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।  দয়া করে পোস্টটি দেখানোর সকল স্টেপ গুলো ফলো করুন আশা করি আপনি আপনার কাঙ্খিত মানুষটিকে আপনার প্রেমে ফেলতে পারবেন।  তো চলুন দেখে নেওয়া যাক আজকের খুব সহজে মেয়েদের প্রেমে ফেলার উপায় সমূহ। এখানে ২০ টির মত মেয়েদের প্রেমে ফেলার উপায় জানানো হবে।

মেয়েদের প্রেমে ফেলার উপায়,ফেসবুকে মেয়ে পটানোর সহজ উপায় | কীভাবে ফেসবুকে মেয়ে পটানো যায়,মেয়েদের প্রেমে ফেলার এস এম এস ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার সহজ উপায় ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার তাবিজ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার মন্ত্র, মেয়েদের প্রেমে ফেলার দোয়া ,মেয়েকে প্রেমে ফেলার কিছু সহজ উপায়,অপরিচিত মেয়েকে প্রেমে ফেলার উপায়,মেয়ে পটানোর টেকনিক,ফেসবুকে মেয়ে পটানোর সহজ আধুনিক উপায়,



মেয়ে পটানোর উপায়, টিপস ও কৌশলসমূহ – মোবাইল ফোন এবং ফেসবুকে মেয়ে পটানো শিখুন

১) প্রথম সাক্ষাতেই নিজের ইমপ্রেশন তৈরি করুন
ইংরেজিতে একটা কথা আছে। ফার্স্ট ইমপ্রেশন ইজ দ্য লাস্ট ইমপ্রেশন। সহজ করে বললে, কারও সাথে প্রথম সাক্ষাতে আপনার যে বিষয়টি অন্যের কাছে ফুটে উঠবে সেটিই আপনার শেষের ফলাফল নির্ধারন করবে। তাই প্রথম সাক্ষাৎ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আত্মবিশ্বাসী থাকুন। প্রথম সাক্ষাতে এমন কিছু বলুন, যা দিয়ে আপনার পছন্দের মানুষটির মনে আপনি দাগ কাটতে পারেন। আবার এমন কিছুও বলবেন না, যা আপনাকে খুব হাল্কা করে দিবে। প্রথম সাক্ষাতের আগে নিজের পোষাক আষাক নিয়ে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিন। নির্ধারিত সময়ের আগেই পৌঁছাতে চেষ্টা করুন। জানেন তো, মেয়েরা অপেক্ষা করা পছন্দ করে না!

২) নিজেকে একটি ‘চ্যালেঞ্জে’ পরিণত করুন
আপনি তাকে রাজি করানোর কষ্টের পরিবর্তে যদি এমন কিছু করতে পারেন যাতে তিনিই আপনার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেন তাহলে ভালো হয় না? গবেষণায় দেখা গেছে, নারীরা এমন পুরুষ বেশি পছন্দ করেন যাদেরকে সহজে কাবু করা যায় না। সহজ করে বললে, পছন্দের মানুষটিকে রাজি করার চ্যালেঞ্জ না নিয়ে বরং নিজেকেই চ্যালেঞ্জে পরিণত করুন যেন সেই আপনাকে রাজি করাতে কিছু করে।

৩) সঠিক প্রশ্ন করুন
যেহেতু প্রথম দেখা বা নতুন নতুন আলাপ তাই একে অপরের বিষয়ে জানতে হলে প্রশ্ন তো করতেই হবে। তবে সেই প্রশ্নের ওপরও কিন্তু আপনার সফলতা ব্যর্থতা নির্ভর করছে। তাই প্রশ্ন করার সময় সতর্ক থাকুন। “আপনার কী বয়ফ্রেন্ড আছে?” এমন প্রশ্ন না করাই ভালো। জানেন তো, মন দেওয়া নেওয়ার বিষয়ে মেয়েরা ছেলেদের থেকে এক ডিগ্রী বেশি আগানো থাকে। আপনি বরং আপনার পছন্দের মানুষের পছন্দ অপছন্দ নিয়ে কথা বলুন। তাঁর প্রিয় গায়ক কে জানতে চান। সেই গায়কের একটি গান গেয়ে শোনান। আপনি টয়লেট সিঙ্গার হলেও সাফল্যের সম্ভাবনা বেড়ে যাবে বহুগুণ।

৪) বেশি ঘুরঘুর করবেন না
কোন কিছুই বেশি ভালো না। পছন্দের মানুষের মন জয় করতে তাঁর আশেপাশে অবশ্যই যাবেন তবে তা এতটা বেশি হওয়া উচিত নয় যা আপনাকে একদম ‘সহজলভ্য’ করে তোলে। নিজের ব্যক্তিত্বকে এমনভাবে প্রকাশ করুন যেন আপনি তাঁর কাছে আছেন আবার অনেক দূরে। আপনি চাইলে তাঁর কাছে যেতে পারবেন কিন্তু তিনি চাইলে পারবেন না। চেষ্টা করেই দেখুন, কাজে দিবে।

৫) ছোট ছোট বিষয়ে মনযোগ দিন
পছন্দের মানুষটির মন জয় করবেন আর তার দিকে মনযোগ দিবেন না, তা তো হয় ন। তাই তাঁর প্রতিটি বিষয়ে বিশেষ পছন্দ করুন। তাঁর পোশাকটি সুন্দর হয়েছে এমন মন্তব্য করুন। পোশাকের সাথে তাঁর কানের দুল বেশ ম্যাচ করেছে তাও বলুন। আপনার এই প্রতিটি ছোট ছোট মনযোগ আপনার দিকে তাঁর মনযোগ বাড়িয়ে দিবে বহুগুনে।
৬) কোথায় দাগ টানতে হবে তাও জেনে রাখুন
আপনি তাকে রাজি করানোর চেষ্টা করেছেন, তিনিও রাজি হয়েছেন। এক আধবার ডেটেও গেলেন। এবার? ডেটে যাওয়ার জন্য তাকে বারবার বলবেন না। কখনও কখনও ডেটে যাওয়ার প্রস্তাব তাঁর দিক থেকেও আসতে দিন। এমন প্রস্তাব আসলেই আবার আনন্দে লাফালাফি করবেন না। একটু ভাব দেখান। বলুন কাজ আছে। তবে বারবার আবার না বলবেন না। তাহলে হয়তো আর আপনাকে ডিনারের আমন্ত্রণ নাও দিতে পারে!

৭) তাকে ভালভাবে জানুন
শুরুর দিকে একে অপরের বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা না হলে নিজেদের বিষয়ে জানতে পারবেন না। তবে এই আলোচনা বা সাক্ষাৎকারের মানে এই না যে, শুধু আপনি বলে যাবেন। তাঁর কাছেও জানতে চান। প্রশ্ন করুন। নিজের বিষয়ে যেমন তাকে জানাবেন তেমনি তাঁর বিষয়েও ভালভাবে জানুন।

৮) তাকে হাসান তবে নিজে তাকে হাসির পাত্র করবেন না
মেয়েদের হাসি কাপন ধরিয়ে দিতে পারে অনেক ছেলের। আপনি যদি আপনার পছন্দের মেয়ের মুখে হাসি আনতে পারেন তাহলে তাঁর মনে জায়গা পাওয়া অনেকটাই সহজ হতে পারে আপনার জন্য। তবে এর মানে এই না যে, নিজেকে বা তাকে অন্যের সামনে হাসির পাত্র করবেন। নিজেকে হাসির পাত্র করলে তাঁর কাছে আপনার গুরুত্ব কমে যাবে। আর তাকে হাসির পাত্র করলে তো খবরই আছে, ভাই।
মজার মজার জোকস বা ছোট গল্প শুনিয়ে হাসি আনুন তাঁর ঠোটে। আর হ্যাঁ, যদি সমর্থ হন তাহলে সেই হাসিরও প্রশংসা করুন।
৯) কিছু সিক্রেট লুকিয়ে রাখুন
মানুষটির মন জয় করতে আপনি সবকিছুই করবেন। তবে ‘সিক্রেট’ লুকিয়ে রাখুন। আপনার মানুষটিকেই সেসব ‘সিক্রেট’ খুঁজে বের করে নিতে দিন। নিজের শেষ ‘কার্ড’টি বাঁচিয়ে রাখুন মোক্ষম সুযোগের অপেক্ষায়।

১০) তাকে তাড়া করবেন না
ভালবাসার খেলায় কোন তাড়াহুড়া করবেন না। তাকে কোন ধরণের তাড়াও দিবেন না। ধীর ও স্থির ব্যক্তিই শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়। তাই ধৈর্য্য ধরুণ।
ভালো হয় সম্পর্কের বড় ধরণের পরিবর্তন আনতে তাকেই প্রথম পদক্ষেপটি নিতে দিন। উপরের পরামর্শগুলো অনুসরণ করুন। পেয়েও যেতে পারেন মনের মানুষটিকে।


নারীকে প্রেমে ফেলার কিছু সহজ উপায় ঃ


১। ভালোবাসার প্রথম শর্তই হল সততা, আপনার প্রিয় মানুষটির নিকট সব সময় সৎ থাকুন। কোন কিছুই তার কাছে গোপন করার চেষ্টা করবেন না।

২। প্রিয় মানুষটিকে তার দূর্বলতায় আঘাত করা যাবনা।

৩। আপনাকে হতে হবে আত্মবিশ্বাসী। সব ধরনের মেয়ারা ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন ও আত্মবিশ্বাসী ছেলেদের বেশী পছন্দ করে। প্রিয়তমার মানসিক ও শারীরিক চাহিদার প্রতি খেয়াল রাখুন।

৪। প্রিয়তমাকে নিজের ধনসম্পদের চেয়েও বেশি ভালোবাসতে হবে। সকল নারীরাই তার প্রিয়জনের নিকট থেকে ভালোবাসা পেতে চায়। মেয়েরা চায় তার প্রিয় মানুষটি তার প্রতি খেয়াল রাখুক তার প্রতি যত্নবান হোক। সব কিছুর উর্ধ্বে দেখুক তাকে।  

৫। মেয়েরা রসিক ছেলেদের বেশি পছন্দ করে। সামান্য একটা তুচ্ছ ব্যাপার নিয়ে যেসব ছেলেরা তামাশা করতে পারে সেইসব ছেলেদের মেয়েরা বেশি পছন্দ করে।

৬। মেয়েরা সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিপাটি থাকতে পছন্দ করে। মেয়েরাও চায় তার প্রিয় মানুষটি সব সময় ফিটফাট থাকুক।


৭। প্রিয়তমাকে প্রশ্ন করার মত সুযোগ দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে সে কি জানতে চায়।

৮। নিজের পারিবারিক ব্যাপারে তার সামনে খোলামেলা আলোচনা করতে হবে। এতে নারীরা নিজেদের অনেকটা নিরাপত মনে করে।

৯। আপনার জীবনে যদি পূ্র্বে কোন প্রেম থেকে থাকে তা প্রিয়তমাকে বলতে যাবেন না যদি সে কখোনো জানতে না চায়। প্রিয়তমা জানতে চাইলে তবেই বলা যেতে পারে।

১০। কথার ছলে গল্প বলা মেয়েরা খুব ভালোবাসে। প্রিয় মানুষটির গল্পে-স্বল্পে বিরক্ত হবেন কিন্তু। তাহলে আপনার প্রিয়তমা কিন্তু আপনার উপর রেগে যাবে।  

১১। প্রিয়তমার সাথে কথা বলার সময় তার শরীরের দিক না তাকিয়ে তার চোখের দিকে তাকিয়ে আবেগের সহিত কথা বলুন। এতে মেয়েরা খুবই খুশি হয়।

১২। আপনার মনে বেদনার ঝড় বইতে পারে, তার জন্য বিষয়টি সবাইকে বলে বেড়াবেন তা নয়। প্রিয়তমাকেও আপনার দুঃখ-কষ্ট বুঝতে না দিয়ে হাসি খুশি থাকার চেষ্টা করুন।

১৩। একটা কথা আছে না, দেখলে মায়া, না দেখলে ছাড়া, কাছে থাকলে পোড়ে মন দূরে গেলে ঠনঠন। তাই যথাসম্ভব প্রিয়জনের কাছাকাছি থাকার চেষ্টা করুন। তাকে ঘনঘন সময় দিতে পারলে ভালো হয়।

১৪। প্রিয়তমার পছন্দ-অপছন্দের প্রতি খেয়াল রাখুন। তার ভালো লাগার প্রতি গুরুত্ব দিন এবং মন্দ লাগার বিষয়গুলোও মাথায় রাখুন।   

১৫। প্রিয়তরার সাথে অন্যকোন নারীর তুলনা করা যাবে না। এটি মেয়েরা মোটেও পছন্দ করেন না।

১৬। অনেকেই ভাবেন প্রেমিকার সঙ্গে বন্ধুত্ব করা যায় না! কথাটি মোটেও ঠিক না। আগে বন্ধুত্ব অতঃপর প্রেম।

১৭। প্রেমিকার বিশ্বাসে কখোনো আঘাত করবেন না। প্রিয়তমার চিন্তা চেতনাকে সম্মান করুন।

১৮। প্রেমিকার শরীরের মোহে না পরে তার মনের গুরুত্ব দিন। শরীর বৃত্তিয় ভালোবাসা বেশিদিন টিকে থাকে না। মন থেকে ভালোবাসুন। তাহলে দেখবেন একসময় অনায়াসেই তার শরীর মন দু’টোই পেয়ে যাবেন।

 ১৯। নারীরা প্রকৃতিগত ভাবেই কোমল। তাই প্রিয়তমার সাথে কথা বলার সময় কখনো কঠোর হবেন না। নরম সুরে নারীর সাথে কথা বলুন।  

২০। নারীরা খুব আবেগ প্রবণ। তারা সবসময় পরিবার-পরিজন নিয়ে থাকতে ভালোবাসে। আপনার প্রিয় মানুষটির পরিবারের প্রতি খেয়াল রাখুন। ঘনঘন খোজ খবর নিন।




Tags:মেয়েদের প্রেমে ফেলার উপায়,ফেসবুকে মেয়ে পটানোর সহজ উপায় | কীভাবে ফেসবুকে মেয়ে পটানো যায়,মেয়েদের প্রেমে ফেলার এস এম এস ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার সহজ উপায় ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার তাবিজ,মেয়েদের প্রেমে ফেলার মন্ত্র, মেয়েদের প্রেমে ফেলার দোয়া ,মেয়েকে প্রেমে ফেলার কিছু সহজ উপায়,অপরিচিত মেয়েকে প্রেমে ফেলার উপায়,মেয়ে পটানোর টেকনিক,ফেসবুকে মেয়ে পটানোর সহজ আধুনিক উপায়,


0/Post a Comment/Comments

 



 

TIME OF BD APK


TIME OF BD APK


 শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে আমাদের অফিসিয়াল এসাইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই আমাদের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এসাইনমেন্টের ভিডিও গুলোর নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন

আমাদের অফিসিয়াল এসাইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png