সূরা তাকাসুর এর বাংলা উচ্চারন | সূরা তাকাসুর এর বাংলা অর্থ | সূরা তাকাসুর এর তাফসীর

সূরা তাকাসুর, তাকাসুর সুরা, সূরা আত তাকাসুর এর বাংলা উচ্চারণ, সূরা আত তাকাসুর, সূরা তাকাসুর বাংলা উচ্চারণ, সুরা তাকাসুর, সুরা তাকাসুর বাংলা লেখা, সুরা তাকাসুর এর তাফসীর, সূরা তাকাসুর বাংলা অর্থ।

 
আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ। আমার দ্বীনী ভাই ও বোনেরা আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়া ও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। প্রিয়  ভাই ও বোনেরা আজ আমি আপনাদের মাঝে নিয়ে আসলাম:- সূরা তাকাসুর, তাকাসুর সুরা, সূরা আত তাকাসুর এর বাংলা উচ্চারণ, সূরা আত তাকাসুর, সূরা তাকাসুর বাংলা উচ্চারণ, সুরা তাকাসুর, সুরা তাকাসুর বাংলা লেখা, সুরা তাকাসুর এর তাফসীর, সূরা তাকাসুর বাংলা অর্থ।তো দেরি না করে আসুন আমরা পড়া শুরু করি।

সূরা তাকাসূর | সূরা আত তাকাসুর এর বাংলা উচ্চারণ | সূরা আত তাকাসুর | সূরা তাকাসুর বাংলা উচ্চারণ | সুরা তাকাসুর বাংলা লেখা | সুরা তাকাসুর বাংলা অর্থ 


بِسمِ اللَّهِ الرَّحمٰنِ الرَّحيمِ

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

 শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু
 

[1]  أَلهىٰكُمُ التَّكاثُرُ

[1] আল্হা-কুমু ত্তাকা-ছুরু

[1] প্রাচুর্যের লালসা তোমাদেরকে গাফেল রাখে,


[2]  حَتّىٰ زُرتُمُ المَقابِرَ

[2] হাত্তা-র্যুতুমুল্ মাক্বা-র্বি।

[2] এমনকি, তোমরা কবরস্থানে পৌছে যাও।
 

[3]  كَلّا سَوفَ تَعلَمونَ

[3]  কাল্লা-সাওফা তা’লামূনা

[3] এটা কখনও উচিত নয়। তোমরা সত্ত্বরই জেনে নেবে।
 

[4]  ثُمَّ كَلّا سَوفَ تَعلَمونَ

[4] ছুম্মা কাল্লা-সাওফা তা’লামূন্।

[4] অতঃপর এটা কখনও উচিত নয়। তোমরা সত্ত্বরই জেনে নেবে।


[5]  كَلّا لَو تَعلَمونَ عِلمَ اليَقينِ

[5] কাল্লা-লাও তা’লামূনা ই’ল্মাল্ ইয়াক্বীন্।

[5] কখনই নয়; যদি তোমরা নিশ্চিত জানতে।


[6]  لَتَرَوُنَّ الجَحيمَ

[6] লাতারায়ুন্নাল্ জ্বাহীমা

[6] তোমরা অবশ্যই জাহান্নাম দেখবে,


[7]  ثُمَّ لَتَرَوُنَّها عَينَ اليَقينِ

[7] ছুম্মা লাতারায়ুন্নাহা-‘আইনাল্ ইয়াক্বীন।

[7] অতঃপর তোমরা তা অবশ্যই দেখবে দিব্য প্রত্যয়ে,


[8]  ثُمَّ لَتُسـَٔلُنَّ يَومَئِذٍ عَنِ النَّعيمِ

[8] ছুম্মা লাতুস্য়ালুন্না ইয়াওমায়িযিন্ ‘আনিন্নাঈ’ম্।

[8] এরপর অবশ্যই সেদিন তোমরা নেয়ামত সম্পর্কে জিজ্ঞাসিত হবে।

সূরা তাকাসুর এর তাফসীর 


হাদিস নাম্বার - ৩৩৫৪

মুতাররিফ ইবনি আবদুল্লাহ ইবনিশ শিখ্খীর (রঃ) হইতে তার বাবা হইতে বর্ণীতঃ

 “তিনি নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর নিকট গেলেনʼʼ। তিনি তখন (সূরা তাকাসুর) “তোমাদেরকে সম্পদের প্রাচুর্যের মোহ আল্লাহ তাআলা হইতে উদাসীন করে ফেলেছে “(সূরা তাকাসুর ১)ʼʼ পাঠ করছিলেন। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেনঃ আদম সন্তান বলে, আমার মাল; আমার সম্পত্তি। কিন্তু যে জিনিস তুমি দান-খাইরাত করেছ  “আল্লাহ তাআলার খাতায়ʼʼ তা জমা রেখেছ, যা খেয়ে শেষ করেছ কিংবা যা পরিধান করে পুরাতন করেছ, এগুলো ব্যতীত তোমার সম্পদ বলিতে কিছু নেই।

সহীহঃ মুসলিম, ২৩২৯ নং হাদীস পূর্বে বর্ণিত হয়েছে।

আবু ঈসা বলেন, হাদীসটি হাসান সহীহ।

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

হাদিস নাম্বার - ৩৩৫৫

আলী (রাদি.) হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেনঃ আমরা কবরের আযাব প্রসঙ্গে সংশয়ে ছিলাম। সেই প্রেক্ষাপটে সূরা আলহাকুমুত-তাকাসুর অবতীর্ণ হয়।

সনদ দুর্বল

> আবু কুরাইব কখনো আমর ইবনি আবু কাইস হইতে তিনি ইবনি আবী লাইলা হইতে তিনি আল-মিনহাল হইতে তিনি এভাবে বর্ণনা করিয়াছেন। আমর ইবনি আবু কাইস হলেন আর-রাযী এবং আমর ইবনি আবু কাইস আল-মালাঈ হলেন কূফার বাসিন্দা। আবু ঈসা বলেনঃ এ হাদীসটি গারীব।

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ দুর্বল হাদিস

হাদিস নাম্বার - ৩৩৫৬

আবদুল্লাহ ইবনি যুবাইর ইবনিল আওওয়াম (রঃ) হইতে তার বাবা হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, যখন অবতীর্ণ হলঃ “তারপর তোমাদেরকে সেদিন অবশ্যই নিআমাত সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে”-(সূরা তাকাসুর ৮) সে সময় যুবাইর (রাদি.) বলিলেন, হে আল্লাহ্র রাসূল! আমাদেরকে কোন্ নিআমাত সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে? আমাদের নিকট তো শুধুমাত্র দুধরনের জিনিস রয়েছে; খেজুর ও পানি। রসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেনঃ সে  “সম্পত্তিʼʼ তো অদূর ভবিষ্যতে অর্জিত হইবে।

হাদীসটির সানাদ হাসান।

আবু ঈসা বলেন, হাদীসটি হাসান।

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ হাসান হাদিস

হাদিস নাম্বার - ৩৩৫৭

আবু হুরাইরাহ্ (রাদি.) হইতে বর্ণীতঃ

তিনি বলেন, যখন “তারপর তোমাদেরকে সেদিন নিআমাত সম্পর্কে অবশ্যই জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে”- (সূরা তাকাসুর ৮) আয়াত অবতীর্ণ হয় সে সময় লোকেরা বলল, হে আল্লাহ্‌র রাসূল! আমাদেরকে কোন্ সমস্ত নিআমাত প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হইবে? আমাদের নিকট তো শুধু দুটি কালো জিনিস (খেজুর ও পানি) রয়েছে; আর সর্বদা দুশমন প্রস্তুত রয়েছে এবং আমাদের তরবারিগুলো আমাদের কাঁধে ঝুলন্ত রয়েছে? তিনি বললেনঃ এটা অদূর ভবিষ্যতে হইবে।

পূর্বের হাদীসের সহায়তায় এটি হাসান।

> আবু ঈসা (রঃ) বলেন, এ হাদীসের চাইতে মুহাম্মাদ ইবনি আম্রের সূত্রে ইবনি উয়াইনাহ্ (রঃ) বর্ণিত হাদীসটি আমার দৃষ্টিতে বেশি বিশুদ্ধ। সুফ্ইয়ান ইবনি উয়াইনাহ্ (রঃ) আবু বাক্র ইবনি আইয়্যাশের চেয়ে বেশি স্মরণশক্তি সম্পন্ন ও অনেক বিশুদ্ধ।

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর – এই হাদিসটির তাহকিকঃ হাসান হাদিস

হাদিস নাম্বার - ৩৩৫৮

আবু হুরাইরাহ্ (রাদি.) হইতে বর্ণীতঃ

> রসুলুল্লাহ (সাঃআঃ) বলেছেনঃ ক্বিয়ামাতের দিন বান্দার নিকট সর্বপ্রথম যে নিআমাত প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ করা হইবে সে প্রসঙ্গে তাকে বলা হইবে, আমি তোমার শরীর কি সুস্থ রাখিনি এবং সুশীতল পানির মাধ্যমে তোমাকে তৃপ্ত করিনি?

সহীহঃ সহীহাহ্ (হাঃ ৫৩৯) মিশকাত (৫১৯৬)।

> আবু ঈসা বলেন, হাদীসটি গারীব। আয্-যাহ্হাক হলেন ইবনি আবদুর রহমান ইবনি আরযাব। ইবনি আরযাব-কে ইবনি আরযামও বলা হয়, আর ইবনি আরযামই অনেক বেশী সহীহ।

সুরা তাকাসুর এর তাফসীর –  এই হাদিসটির তাহকিকঃ সহীহ হাদিস



Tag: সূরা তাকাসুর, তাকাসুর সুরা, সূরা আত তাকাসুর এর বাংলা উচ্চারণ, সূরা আত তাকাসুর, সূরা তাকাসুর বাংলা উচ্চারণ, সুরা তাকাসুর, সুরা তাকাসুর বাংলা লেখা, সুরা তাকাসুর এর তাফসীর, সূরা তাকাসুর বাংলা অর্থ।

0/Post a Comment/Comments

chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png