সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ ও অর্থ | সূরা আলাম নাশরাহ তাফসীর | আলাম নাশরাহ সূরা তেলাওয়াত

 
সূরা আলাম নাশরাহ তেলাওয়াত, সূরা আলাম নাশরাহ তাফসীর, সুরা আলাম নাশরাহ, সুরা নাশরাহ, সুরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ, সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ, সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ সহ, আলাম নাশরাহ সূরা, আলাম নাশরাহ লাকা সদ্রক, আলাম নাশরাহ সূরা তেলাওয়াত।


আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ। আমার দ্বীনী ভাই ও বোনেরা আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়া ও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। প্রিয়  ভাই ও বোনেরা আজ আমি আপনাদের মাঝে নিয়ে আসলাম:- সূরা আলাম নাশরাহ তেলাওয়াত, সূরা আলাম নাশরাহ তাফসীর, সুরা আলাম নাশরাহ, সুরা নাশরাহ, সুরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ, সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ, সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ সহ, আলাম নাশরাহ সূরা, আলাম নাশরাহ লাকা সদ্রক, আলাম নাশরাহ সূরা তেলাওয়াত।তো দেরি না করে আসুন আমরা পড়া শুরু করি।

সুরা আলাম নাশরাহ|সুরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ|আলাম নাশরাহ সূরা|আলাম নাশরাহ লাকা সদ্রক 


بِسمِ اللَّهِ الرَّحمٰنِ الرَّحيمِ

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

 শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু


[1] أَلَم نَشرَح لَكَ صَدرَكَ

[1] আলাম্ নাশ্রাহ্ লাকা ছোয়াদ্রাকা।

[1] আমি কি আপনার বক্ষ উম্মুক্ত করে দেইনি?


[2] وَوَضَعنا عَنكَ وِزرَكَ

[2] অওয়াদ্বোয়া’না- ‘আন্কা ওয়িয্রাকা।

[2] আমি লাঘব করেছি আপনার বোঝা,
 

[3] الَّذى أَنقَضَ ظَهرَكَ

[3] আল্লাযী য় আন্ক্বাদ্বোয়া জোয়াহ্রকা।

[3] যা ছিল আপনার জন্যে অতিশয় দুঃসহ।


[4] وَرَفَعنا لَكَ ذِكرَكَ

[4] অরাফা’না-লাকা যিক্রক্।

[4] আমি আপনার আলোচনাকে সমুচ্চ করেছি।


[5] فَإِنَّ مَعَ العُسرِ يُسرًا

[5] ফাইন্না মা‘আল্ উ’স্রি ইয়ুস্রান্।

[5] নিশ্চয় কষ্টের সাথে স্বস্তি রয়েছে।
 

[6] إِنَّ مَعَ العُسرِ يُسرًا

[6] ইন্না মা‘আল্ উ’স্রি ইয়ুস্র-।

[6] নিশ্চয় কষ্টের সাথে স্বস্তি রয়েছে।
 

[7] فَإِذا فَرَغتَ فَانصَب

[7] ফাইযা-ফারাগ্তা ফান্ছোয়াব্।

[7] অতএব, যখন অবসর পান পরিশ্রম করুন।
 

[8] وَإِلىٰ رَبِّكَ فَارغَب

[8] অইলা-রব্বিকা র্ফাগব্।

[8] এবং আপনার পালনকর্তার প্রতি মনোনিবেশ করুন।

সূরা আলাম নাশরাহ তাফসীর 


হাদিস নাম্বার ৩৩৪৬

মালিক ইবনি সাসাআহ্ (রাদি.) হইতে বর্ণীত:

নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেন; “একদিন বাইতুল্লাহর নিকট আমি ঘুম ঘুম ভাব অবস্থায় অবস্থানরত ছিলাম। এমন সময় আমি এক বক্তাকে বলিতে শুনলাম; তিনজনের মধ্যে একজন। তারপর একখানা সোনার পেয়ালা আমার নিকট আনা হল যার মাঝে যমযমের পানি ছিল। তারপর আমার বক্ষদেশ তারা এই এই পর্যন্ত উন্মুক্ত বা বিদীর্ণ করে। ক্বাতাদাহ্ (রঃ) বলেন, আমি আনাস (রাদি.)-কে বললাম, কোন পর্যন্ত? তিনি বললেন; (তিনি বলেছেন) আমার পেটের নিম্নদেশ পর্যন্ত। অতঃপর আমার অন্তঃকরণ বের করে যমযমের পানি দ্বারা ধুয়ে আবার স্ব-স্থানে স্থাপন করা হয়। এরপর তা ঈমান ও হিকমত দ্বারা পরিপূর্ণ করা হয়। হাদীসে সুদীর্ঘ ঘটনা বিদ্যমান।ʼʼ

সহীহঃ বোখারি ও মুসলিম।

আবু ঈসা বলেন, এ হাদীসটি হাসান সহীহ।

সূরা ইনশিরাহ তাফসীর -- এই হাদিসটির তাহকিকঃ সহীহ হাদিস

সূরা আলাম নাশরাহ তেলাওয়াত|আলাম নাশরাহ সূরা তেলাওয়াত 

আরবি উচ্চারন বাংলায় অনেক সময় ভুল থাকে।তাই আপনাদের সবাইকে অনুরোধ করছি, যখন বাংলায় উচ্চারন শিখবেন তখন অবশ্যই আরবির সাথে মিলিয়ে নিবেন। আর যদি কেউ আরবি দেখে পড়তে না পারেন তাহলে অবশ্যই তেলাওয়াত শোনে বাংলার সাথে মিলিয়ে নিবেন। ধন্যবাদ সবাইকে


                              সূরা আল ইনশিরাহ



Tag: সূরা আলাম নাশরাহ তেলাওয়াত, সূরা আলাম নাশরাহ তাফসীর, সুরা আলাম নাশরাহ, সুরা নাশরাহ, সুরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ, সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ, সূরা আলাম নাশরাহ বাংলা উচ্চারণ সহ, আলাম নাশরাহ সূরা, আলাম নাশরাহ লাকা সদ্রক, আলাম নাশরাহ সূরা তেলাওয়াত।

0/Post a Comment/Comments

chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png