বগুড়া জেলার মানচিত্র | বগুড়া জেলার মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবলি | বগুড়া জেলার দর্শনীয় স্থান | বগুড়া জেলার পত্রপত্রিকা

বগুড়া জেলার মানচিত্র , বগুড়া জেলার মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবলি , বগুড়া জেলার দর্শনীয় স্থান , বগুড়া জেলার পত্রপত্রিকা

আসসালামুআলাইকুম প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা কেমন আছেন আশা করি অবশ্যই ভালো আছেন। আজ আমরা আপনাদের মাঝে নিয়ে আসলাম  বগুড়া জেলার মানচিত্র সম্পর্কিত কিছু তথ্য আশাকরি আমাদের এই তথ্যটি আপনার অবশ্যই ভালো লাগবে আমাদের পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন

    বগুড়া জেলার মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবলি

      ১৯৭১ সালের ২৯ মার্চ বগুড়া সদরে ক্যাপ্টেন গিয়াসের নেতৃত্বে ছাত্রজনতা অভিযান চালিয়ে ২৩ জন পাকসেনাকে হত্যা করে ও ৩ টি গাড়ি ধ্বংস করে। ৪ এপ্রিল পাকবাহিনী শিবগঞ্জের ময়দানহাট্টার বামাচরণ মজুমদার পরিবারের ১৬ জনকে হত্যা করে। ১১ এপ্রিল তারা মন্মথ চন্দ্র কুন্ডু ও তার পরিবারের ৮ জনকে হত্যা করে। এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি সময়ে কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা বগুড়া সদরের জলেশ্বরীতলাস্থ ‘স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তান’-এ হামলা করে প্রায় চার কোটি টাকা লুট করে উক্ত টাকা যুদ্ধের ব্যয় নির্বাহের জন্য তৎকালীন মুজিবনগর অস্থায়ী সরকারের হাতে অর্পণ করেন। ১৯ এপ্রিল পাকবাহিনী ধুনট থানা আক্রমণ করলে ১ জন নিহত হয়। ২৩ এপ্রিল পাকবাহিনী ট্যাঙ্কবহর নিয়ে বগুড়া শহরে প্রবেশ করে জঙ্গি বিমান থেকে শহরে বোমা নিক্ষেপ করলে ৩ জন বাঙালি মারা যায়। এসময় সদরের বিভিন্ন জায়গায় সংঘটিত প্রতিরোধ লড়াই ও চোরাগুপ্তা হামলায় ২০ জন পাকসেনা এবং ১৫০ জন বাঙালি নিহত হয়। ২৫ এপ্রিল পাকবাহিনী শেরপুর উপজেলার বাঘড়া কলোনী গ্রামের ৩২ জন লোককে ধরে এনে তাদের মধ্যে ২৫ জনকে ইটখোলার বধ্যভূমিতে গুলি করে হত্যা করে। ২৬ এপ্রিল পাকবাহিনী ঘোগাব্রিজের নিকট ৩০০ জন ও ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী বন্দরে ৩৩ জন লোককে হত্যা করে এবং বন্দরের সম্পদের ব্যাপক ক্ষতি করে। একইদিন দড়িমুকন্দ গ্রামে তাদের অত্যাচারে ২৬ জন গ্রামবাসি নিহত হয়। ২৭ এপ্রিল পাকবাহিনীর ধুনট থানা আক্রমণে ৫ জন সিপাহী মারা যায়। ২৮ এপ্রিল নন্দীগ্রাম উপজেলার বামন গ্রামে পাকবাহিনীর আরো একটি গণহত্যায় ১৫৭ জন লোক মারা যায় এবং তারা সোনাতলা রেলস্টেশন বাজারে ৩ জনকে গুলি করে হত্যা করে।


    বগুড়া জেলার দর্শনীয় স্থান 

    খেরুয়া মসজিদ (শেরপুর), মহাস্থানগড়ের ঐতিহাসিক ধ্বংসাবশেষ, বড় মসজিদ, শাহ সুলতান বলখীর মাযার, পাঁচপীর মাযার, গোকুল মেধ, পরশুরামের প্রাসাদ, বসু বিহার, পল্লী-উন্নয়ন একাডেমী, সাউদিয়া পার্কসিটি, ভিমের জাঙ্গাল, নবাব বাড়ি প্যালেস মিউজিয়াম, কারুপল্লী, ওয়ান্ডারল্যান্ড শিশুপার্ক, শাহনেওয়াজ শিশুবাগান, উডবার্ন পার্ক, দৃষ্টিনন্দন পার্ক, বিজয়াঙ্গন (মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক যাদুঘর)।

    বগুড়া জেলার পত্রপত্রিকা

    পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকী দৈনিক: বাংলাদেশ, করতোয়া, সাতমাথা, দূর্জয় বাংলা, আজ ও আগামীকাল, চাঁদনীবাজার, উত্তরকোণ, বগুড়া, উত্তরাঞ্চল, মুক্তবার্তা, উত্তরবার্তা; সাপ্তাহিক: আজকের শেরপুর, পঞ্চনদীর তীরে, নতুন, দূর্জয়, সাহিত্য, তারুণ্য; অবলুপ্ত: সোনাতলা বার্তা; অনিয়মিত সাময়িকী: বৃত্ত।

    Tag:বগুড়া জেলার মানচিত্র , বগুড়া জেলার মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবলি , বগুড়া জেলার দর্শনীয় স্থান , বগুড়া জেলার পত্রপত্রিকা

    0/Post a Comment/Comments

    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png