শুক্রবার জন্ম রাশিফল | শুক্রবার হলে কেমন হয়

 

শুক্রবার জন্ম হলে, শুক্রবার জন্ম হলে কি হয়, শুক্রবার জন্ম হলে কি রাশি হয় , শুক্রবার জন্ম রাশিফল, শুক্রবার হলে কেমন হয়

    শুক্রবার জন্ম হলে

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ টাইম অফ বিডির পক্ষ থেকে সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা ও সালাম আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ। কেমন আছেন আপনারা সবাই আশা করি সবাই ভালো আছেন আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আজকে আমরা আমাদের এই পোস্টটি তৈরি করেছে শুক্রবার নিয়ে। আমাদের পোষ্টে আজকে শুক্রবার নিয়ে যারা থাকছে সেগুলো হলোশুক্রবার জন্ম হলে, শুক্রবার জন্ম হলে কি হয়, শুক্রবার জন্ম হলে কি রাশি হয় , শুক্রবার জন্ম রাশিফল, শুক্রবার হলে কেমন হয় ।
    আশা করি আপনারা পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন এবং সঠিক তথ্যটি পাবেন।

     শুক্রবার জন্ম হলে কি হয়

    শুক্রবারে জাত ব্যক্তি সচরাচর ভোগী, ধনী, শৌর্য্যশালী, বহুভৃত্যযুক্ত, বেদজ্ঞ ও দয়ালু হয়ে থাকেন। এরা সৃজনশীল ও সৌন্দর্যে পূজারী হন। এরা অত্যন্ত আবেগপ্রবণ হয়ে থাকেন।

     শুক্রবার জন্ম হলে কি রাশি হয়

    শুক্রবারে জন্ম গ্রহন কারী ব্যাক্তি ------"আলেম ও

    সৎ

    চরিত্রবান হয়। এরা বিলামী এবং আরামপ্রিয়তা স্বভাবের হয়। এরা বেশ রোমান্টিক মনের। এরা প্রকৃতি প্রেমি এবং শিল্প প্রেমিও বটে। এদের চরিত্রের বড় গুন হচ্ছে এরা খুবই বন্ধুভাবাপন্ন মনের মানুষ। তাই এদের পরিচিতিও বেশ তাড়াতাড়ি ই ঘটে।"

     শুক্রবার জন্ম রাশিফল

    শুক্রবারে জন্মগ্রহন করা জাত ব্যক্তির ভাগ্য

    প্রত্যেকটি মানুষেরই আলাদা আলাদা রকমের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে। পাশাপাশি এও বলা হয় যে, একজন মানুষের ভাগ্য নির্ভর করে গ্রহ নক্ষত্রের অবস্থানের ওপর। জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, জন্মবার অনুসারে একজন মানুষেকর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য কেমন হবে তা বোঝা যায়। দেখে নিন শুক্রবারে জন্মগ্রহণকারী ব্যক্তিরা কেমন ব্যক্তিত্বের অধিকারী হন।

    শুক্রবারে জন্মানো ব্যাক্তিরা বুদ্ধিমান, সহনশীল , ভাবুক ও মিষ্টি স্বভাবের হয়ে থাকে। এরা যে কোনও পরিস্থিতিকে খুব সহজেই মোকাবিলা করতে পারে ও সর্বদা অন্যের উপকারে নিয়োজিত থাকে এদের প্রাণ। এরা চারিত্রিক দিক থেকে খুই রোমান্টিক প্রকৃতির হয়ে থাকেন। কিন্তু ক্ষেত্রবিশেষে এরা অত্যন্ত চতুর প্রকৃতির হয়ে থাকেন। পাশাপাশি এরা সাজগোজের ক্ষেত্রেও বিশেষ পারদর্শী হয়ে থাকেন এবং সাজগোজ নিয়ে এদের আগ্রহ অন্যান্যদের থেকে খুবই বেশি।

    নিজেদের গুছিয়ে রাখা খুবই পছন্দ করেন। এরা আদতে খুবই শৌখিন প্রকৃতির হয়ে থাকেন। আর নিজের এই শৌখিন স্বভাবের জন্য় এরা অনেকসময়ে অতিরিক্ত ব্যয়প্রবণ হয়ে ওঠেন। এরা অত্যন্ত মিষ্ট স্বভাবের হওয়ার জন্য এরা খুব সহজেই মানুষের মন জয় করে নিতে পারেন।

    যাঁদের জন্ম শুক্রবারে তাঁরা স্বভাবগতভাবে রোম্যান্টিক। এঁরা অনেক কিছুই আগাম বুঝতে পারেন। স্মৃতিশক্তিও প্রখর। অন্যদের কষ্টে এঁরা যন্ত্রণা পান। তবে একটু অলস হওয়ায় লোকের সমালোচনা শুনতে হয়।

    তাঁরা অল্প বয়সেই দায়িত্বপূর্ণ কাজ করতে পারেন। সেই কারণে, একটু বয়স বাড়ার পরে অনেকসময়ে একাকীত্ব ভোগ করেন। এরা জীবনে লক্ষ্য নিয়ে চলেন এবং লক্ষ্যপূরণের জন্য একক লড়াই চালাতে ভালবাসেন।

    এরা বন্ধু বানাতে খুব ভালবাসেন। কারণ একাকীত্ব এরা একেবারেই ভালবাসে না। তবে এই দিনে জন্মানো ব্যক্তিরা জীবনের বিশেষ কিছু সময়ে একাধিক শারীরিক সমস্যায় ভুগে থাকেন। পাশাপাশি এইদিনে জন্মগ্রহণকারী ব্যক্তিরা সকলের নিজের কাজের দ্বারা সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে থাকে। আর সেই কারণেই কোনও কাজের প্রতি এরা বিশেষ মনোযোগী হয়ে থাকে। এছাড়াও এই দিনে জন্মগ্রহণকারী ব্যক্তিরা প্রেমেরক্ষেত্রেও অত্যন্ত রোমান্টিক প্রকৃতির হয় বা কিছু কিছু সমস্যার জন্য এদের প্রেমে একাধিক সমস্যার সৃষ্টি হয়।

    মানুষ জীবনে যতোই বৃহৎ হোক বা ধনী হোকনা কেনো গ্রহ দের ওপরে সে সর্বদাই নির্ভরশীল। আজ কাল কার মানুষেরা যতোই আধুনিকতার হাত ধরে হাঁটুক না কেনো তাদের গ্রহের ওপর বিশ্বাসী হতে হয়। মানব জীবনের প্রথম ও প্রধান বৈশিষ্ট্য হল চরিত্র। আর এই চরিত্র র্নিভরশীল তার জন্মানোর গ্রহের ওপর। মানুষ জাতি যতই আধুনিকতার স্পর্শ পাক না কেনো এখনও পর্যন্ত মানুষ গ্রহ নক্ষত্র এর ওপর বিশ্বাসী। তাই পুরাণ কথা মতে ও পূর্ব পুরুষ এর উক্তি কে মানত্যা দিয়ে, বিচার করে থাকি যে মানুষের ভাগ্য নির্ভর করে গ্রহের ওপর। গ্রহদের অবস্থান অনুসারে নির্ধারণ করা হয়ে থাকে যে জাতিকের চরিত্র কেমন হয়। তাই আজকে আমরা জানবো শুক্রবার জন্মানো জাতকের ব্যক্তিত্ব, জীবন- যাপন ইত্যাদি বিষয়ে।

     শুক্রবার হলে কেমন হয় 

    শুক্রবারে জন্মানো ব্যাক্তিদের জীবন ওই দিনের গ্রহের অবস্থানের ওপর নির্ভরশীল। এটা মানা হয় যে শুক্রবারে জন্মানো ব্যাক্তি ওপর দেবী লক্ষ্মী ও শুক্র গ্রহ বিশেষ প্রভাব শালী হয়। এই দিনের স্বামী হলেন শুক্র ও দেবী হলেন মা লক্ষ্মী তাই এদের ওপর এক ভৌমিক সুখ স্বাচ্ছন্দ লক্ষ করা যায়। এই দিনে জন্মানো ব্যাক্তি বুদ্ধিমান, মিষ্টি স্বভাবী, সহনশীল ও ভাবুক প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা যে কোনও পরিস্থিতি কে খুব সহজে মোকাবিলা করতে পারে ও সর্বদা পরোপকারি হয়ে থাকে। এদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য খুব রোমান্টিক ও চতুরধর্মী হয়ে থাকে। এরা সঙ্গীতের প্রতি বিশেষ অনুরাগী হয়ে থাকে।

    এই দিনে জন্মানো ব্যক্তি খুব ফর্সা ও আকর্ষণীয় মুখশ্রী হয়ে থাকে। এরা নিজেদের খুব সাজ শয্যায় আবৃত করে রাখে ও সাজ গোজের প্রতি বিশেষ আকৃষ্ট হয় এবং এটা খুব পছন্দ করে। এই দিনে জন্মানো ব্যাক্তি নিজেদেরকে খুব গুছিয়ে রাখতে ভালো পরে। কোথাও বেরোনোর আগে পরিপাটি করে নিজেদের গোছয় ও বাড়ির চারপাশ ও গুছিয়ে রাখার এক প্রবল প্রবনতা এদের মধ্যে বর্তমান। এই পরিপাটিতার জন্য অধিক ব্যয় ধর্মী হয়ে থাকে। এরা খুব মিষ্টি কথায় মানুষের মন জয় করে ও তাদের গোপন কথা জানে কিন্তু নিজের মনের কথা কাউকে বুঝতে দেয় না। এরা খুব চতুর প্রকৃতির ও চালাকশীল মানুষ হয়ে থাকে।

    এই দিনে জন্মানো ব্যাক্তি একাকীত্ব একদম পছন্দ করে না, এরা খুব বন্ধু পিয়াসী হয়ে থাকে। তাই এদের বন্ধু সংখ্যা ও অধিক থেকে অধিকতর হয়ে থাকে। এই দিনে জন্মানো ব্যাক্তি শারীরিক দিকে একটু দুর্বল হয়ে পড়ে। এদের মধ্যে সুগার, জন্ডিস, চোখের সমস্যা, গলার সমস্যা, ও জ্বর এই সব রোগের সমস্যা হয়ে থাকে। এই দিনে জন্মানো ব্যাক্তি খুব নিজের প্রশংসা আকাঙ্ক্ষী হয়ে থাকে। তাই কোনো কাজ খুব মনোযোগের সহিত সম্পন্ন করে। এরা অনেক ক্ষেত্রে সাফল্য লাভ করে ও সকলের খুব প্রিয় পাত্র ও হয়। এদের পরিচ্ছন্ন মানসিকতা নিজের কাজের ক্ষেত্রে ও ব্যবহার করে থাকে।

    Tag:শুক্রবার জন্ম হলে, শুক্রবার জন্ম হলে কি হয়, শুক্রবার জন্ম হলে কি রাশি হয় , শুক্রবার জন্ম রাশিফল, শুক্রবার হলে কেমন হয় 

    0/Post a Comment/Comments

     



     

    TIME OF BD APK


    TIME OF BD APK


     শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে আমাদের অফিসিয়াল এসাইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই আমাদের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এসাইনমেন্টের ভিডিও গুলোর নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন

    আমাদের অফিসিয়াল এসাইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png