বর্গ বর্গমূল পূর্ণবর্গ ল.সা.গু গ.সা.গু কাকে বলে। What is square, root mean square, LCM GCM - Time Of BD - Education Blog

হ্যাপি নিউ ইয়ার ২০২৩ ভিজিটর বন্ধুরা। দোয়া করি, এই বছরের প্রতিটি মুহুর্ত যেনো সকলের অনেক আনন্দে কাটে।

বর্গ বর্গমূল পূর্ণবর্গ ল.সা.গু গ.সা.গু কাকে বলে। What is square, root mean square, LCM GCM

পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে, বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে, বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়, ল.সা.গু কাকে বলে, গ.সা.গু কাকে বলে, ল.সা.গু কাকে বলে, লসাগু কাকে বলে, গসাগু কাকে বলে

আসসালামু আলাইকুম। প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা আশা করি সকলেই ভালো আছো। অংক করার ক্ষেত্রে অনেক সময়ই তোমরা  পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে, বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে, বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়, ল.সা.গু কাকে বলে, গ.সা.গু কাকে বলে, ল.সা.গু কাকে বলে, লসাগু কাকে বলে, গসাগু কাকে বলে সমস্যাগুলোর মুখোমুুুুখী হয়ে থাকো। পাঠ্যবইয়ের স্বল্প ব্যাখ্যার কারণে অনেক সময় তোমরা পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে, বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে, বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়, ল.সা.গু কাকে বলে, গ.সা.গু কাকে বলে, ল.সা.গু কাকে বলে, লসাগু কাকে বলে, গসাগু কাকে বলে বিষয়গুলো পুরোপুরি আত্মস্থ করতে পারোনা। তাই তোমাদের পাঠক্রমকে সহজ করার জন্য আমরা তোমাদের মাঝে পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে, বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে, বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়, ল.সা.গু কাকে বলে, গ.সা.গু কাকে বলে, ল.সা.গু কাকে বলে, লসাগু কাকে বলে, গসাগু কাকে বলে  সহজ ও সাবলীলভাবে তুলে ধরেছি। আশাকরি এরপর থেকে পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে, বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে, বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়, ল.সা.গু কাকে বলে, গ.সা.গু কাকে বলে, ল.সা.গু কাকে বলে, লসাগু কাকে বলে, গসাগু কাকে বলে বিষয়গুলোতে আর কখনো সমস্যা হবেনা।


       
       

    পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে | বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে | বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়

    গণিতে, বর্গ সংখ্যা বা পূর্ণবর্গ হলো একটি পূর্ণসংখ্যা যা একটি পূর্ণসংখ্যার বর্গ। অন্য কথায়, এটি নিজের সঙ্গেই কিছু পূর্ণসংখ্যার গুণফল।

    উদাহরণস্বরূপ, ৯ একটি বর্গসংখ্যা, যেহেতু এটি ৩ × ৩ হিসাবে লিখিত হতে পারে।

    একটি সংখ্যা n এর বর্গের সাধারণ সংকেত n × n নয়, বরং সমতুল্য সূচক n^2, সাধারণত যা "n এর বর্গ" হিসাবে উচ্চারণ করা হয়। বর্গ সংখ্যা নামটি আকৃতির নাম থেকে এসেছে।

    বর্গ সংখ্যাসমূহ হল অ-ঋণাত্মক। অন্য কথায় বলতে গেলে, একটি (অ-ঋণাত্মক) পূর্ণসংখ্যা হল একটি বর্গ সংখ্যা এবং এর বর্গমূলও আবার একটি পূর্ণসংখ্যা। উদাহরণস্বরূপ, √৯ = ৩, তাই ৯ হল একটি বর্গ সংখ্যা। কোন ধনাত্মক পূর্ণসংখ্যার ১ ব্যতীত অন্য কোন পূর্ণবর্গ ভাজক না থাকলে, তাকে বর্গ-মুক্ত সংখ্যা বলা হয়।

    একটি অ-ঋণাত্মক পূর্ণসংখ্যা n এর জন্য, n তম বর্গ সংখ্যা n^2 হয় ( শূন্যতম হলে)। 


    বর্গ ও বর্গমূলঃ কোনো সংখ্যাকে ঐ সংখ্যা দিয়ে গুণ করলে যে গুণফল পাওয়া যাবে, তাকে ঐ সংখ্যার বর্গ বলে এবং সংখ্যাটিকে গুণফলের বর্গমূল বলে।

     যেমন: ৭*৭=৪৯


    এখনে ৪৯ হলো ৭ এর বর্গ  একং ৪৯ এর বর্গমূল হচ্ছে ৭।


    বর্গ ও বর্গমূলের মধ্যে পার্থক্যঃ

    ১.যে কোন সংখ্যারই বর্গ আছে।

    ২.সব সংখ্যারই বর্গমূল আছে, কিন্তু সব সংখ্যারই বর্গমূল পূর্ণ সংখ্যায় নেই। যেমন: ৫ এর বর্গমূল ২.২৩৬ কিন্তু ৯ এর বর্গমূল ৩


    পূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়ঃ

    ১.কোন সংখ্যার শেষে যদি বিজোড় সংখ্যক শূন্য থাকে, ঐ সংখ্যা পূর্ণবর্গ নয়। যেমন: ১০, ১০০০ সংখ্যা গুলো পূর্ণবর্গ সংখ্যা নয়।

    ২.কোন পূর্ণ বর্গ সংখ্যার একক স্থানীয় অঙ্ক ০, ১, ৪, ৫, ৬, এবং ৯ হবে।

    ৩.পূর্ণ বর্গ সংখ্যার একক স্থানীয় অঙ্ক ২, ৩, ৭, এবং ৮ হবে না।


    ল.সা.গু কাকে বলে | গ.সা.গু কাকে বলে | ল.সা.গু কাকে বলে | লসাগু কাকে বলে | গসাগু কাকে বলে

    ল.সা.গুঃ দুই বা ততোধিক সংখ্যার সাধারণ গুণিতকগুলির মধ্যে যে গুণিতকটি ক্ষুদ্রতম, তাকে প্রদত্ত সংখ্যাগুলির ল.সা.গু. বা লঘিষ্ঠ সাধারণ গুণিতক বলে।


    যেমনঃ ১০, ২০, ৩০ তিনটি সংখ্যাই ২, ৫ ও ১০ দ্বারা বিভাজ্য। সুতরাং, সংখ্যা ৩টির ল.সা.গু ২।


    গ.সা.গুঃ কয়েকটি সংখ্যার সাধারণ গুণনীয়ক বা উৎপাদকগুলির মধ্যে যেটি গরিষ্ট(বড়ো), তাকে প্রদত্ত সংখ্যাগুলির গ.সা.গু. বা গরিষ্ঠ সাধারণ গুণনীয়ক বলে।


    যেমনঃ ১০, ২০, ৩০ তিনটি সংখ্যাই ২, ৫ ও ১০ দ্বারা বিভাজ্য। সুতরাং, সংখ্যা ৩টির গ.সা.গু ১০।


    সূত্রাবলি: -

     (1) দুটি সংখ্যার গুণফল= সংখ্যা দুটির ল.সা.গু. ×গ.সা.গু. ।


    (2) সংখ্যা দুটির ল.সা.গু= সংখ্যা দুটির গুণফল÷ গ.সা.গু.।


    (3) সংখ্যা দুটির গ.সা.গু. = সংখ্যা দুটির গুণফল ÷ ল.সা.গু. ।


    (4) একাধিক ভগ্নাংশের ল.সা.গু.= (লবগুলির ল.সা.গু.)÷(হরগুলির গ.সা.গু)


    (5) একাধিক ভগ্নাংশের গ.সা.গু.= (লবগুলির গ.সা.গু.)÷(হরগুলির ল.সা.গু)


    (6) যে কোন তিনটি সংখ্যা x,y ও z যে বৃহত্তম সংখ্যা দ্বারা বিভাজ‍্য সেটি হল x,y ও z -এর গ.সা.গু.।


    (7) যে কোন তিনটি সংখ্যা x,y ও z দ্বারা যে ক্ষুদ্রতম সংখ্যা বিভাজ‍্য সেটি হল x,y ও z -এর ল.সা.গু. ।


    (8) যে ক্ষুদ্রতম সংখ্যা, যাকে যে-কোনো তিনটি সংখ্যা x, y এবং z দ্বারা ভাগ করলে ভাগশেষ হয় যথাক্রমে a, b এবং c সেটি হল= (x,y ও z-এর লসাগু)-K ,যেখানে K=x-a=y-b=z-c.


    (9) যে বৃহত্তম সংখ্যা যার দ্বারা যে-কোনো তিনটি সংখ্যা x, y এবং z কে ভাগ করলে প্রতিক্ষেত্রে ভাগশেষ a থাকে , সেটি হল=(x-a),(y-a) ও(z-a) -এর গসাগু।


    (10) যে বৃহত্তম সংখ্যা যার দ্বারা x, y এবং z তিনটি সংখ্যা ভাগ করলে যথাক্রমে a, b ও c ভাগশেষ থাকে, সেটি হল=(x-a),(y-b) ও (z-c) এর গসাগু।



    (11) যে বৃহত্তম সংখ্যা যার দ্বারা a, b ও c -কে ভাগ করলে একই ভাগশেষ থাকবে, সেটি হল=(b-a) ও (c-b) -এর গসাগু।


    ট্যাগঃ পূর্ণবর্গ সংখ্যা কাকে বলে, বর্গ ও বর্গমূল কাকে বলে, বপূর্ণবর্গ সংখ্যা চেনার উপায়, ল.সা.গু কাকে বলে, গ.সা.গু কাকে বলে, ল.সা.গু কাকে বলে, লসাগু কাকে বলে, গসাগু কাকে বলে।

    Next Post Previous Post
    No Comment
    Add Comment
    comment url

     আমাদের সাইটের সকল পিডিএফ এর পাসওয়ার্ড হচ্ছে timeofbd.com