তাফসীরে বায়যাবী pdf | তাফসীরে বায়যাবী আরবি বাংলা ডাউনলোড

তাফসীরে বায়যাবী pdf | তাফসীরে বায়যাবী আরবি বাংলা ডাউনলোড

 



তাফসিরে বায়যাবি, তাফসীরে বায়যাবী pdf, তাফসিরে বায়যাবী এর বৈশিষ্ট্য, তাফসিরে বায়যাবী ইসলামিয়া কুতুবখানা, তাফসীরে বায়যাবী আরবি বাংলা ডাউনলোড


    তাফসিরে বায়যাবী
    প্রিয় পাঠকবৃন্দ টাইম অফ বিডির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা ও সালাম আসসালামু আলাইকুম। আপনারা সবাই কেমন আছেন? আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আপনারা অনেকেই হয়তো খুঁজছেন তাফসিরে বায়যাবী এর pdf ।আর তাই আজকে আমরা আমাদের পোস্টটি আপনাদের জন্য হাজির করেছি। আজকে আমাদের এই পোস্টে যা যা থাকছে সেগুলো হলোতাফসিরে বায়যাবী, তাফসীরে বায়যাবী pdf, তাফসিরে বায়যাবী এর বৈশিষ্ট্য, তাফসিরে বায়যাবী ইসলামিয়া কুতুবখানা, তাফসীরে বায়যাবী আরবি বাংলা ডাউনলোড । আশা করিিি পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন এবং সঠিক তথ্যটি পাবেন।

    তাপসীরে বায়যাবী pdf 

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা হয়তো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় তাফসীরে বায়যাবী পিডিএফ ডাউনলোড করতে চাচ্ছেন। কিন্তু হয়তো অনেকে খুঁজে পাচ্ছেন না। আর তাই আপনাদের জন্যই আমরা আমাদের আজকের পোস্টটি তৈরি করেছি।আজকে আমাদের পোষ্টে তাফসীরে বায়যাবী পিডিএফ দেয়া হলো।পিডিএফ টি ডাউনলোড করতে আপনারা আমাদের পোষ্টে দেওয়া ডাউনলোড দা পিডিএফ লিংক এ ক্লিক করুন। এভাবে আপনারা পিডিএফ টি ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

    Download the pdf link

    তাফসিরে বায়যাবী এর বৈশিষ্ট্য 

    তাফসীর বিদদিরায়াহ এর মাঝে অন্যতম একটি তাফসীর গ্রন্থ হল: الكشاف عن حقائق التنزيل وعيون الأقاويل فى وجوه التأويل (অর্থ: (এটা) কুরআন কারীমের দুর্বোধ্য মূল অর্থ ও কুরআন ব্যাখ্যার বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ সংশ্লিষ্ট বক্তব্যের মূল মূল অংশ উদঘাটনকারী) এটা এ তাফসীর গ্রন্থের মূল নাম হলেও এ কিতাবটি সংক্ষেপে তাফসীরে কাশ্শাফ হিসেবেই অধিক প্রসিদ্ধ

    যেসকল তাফসীরের মাঝে তাফসীরে কাশ্শাফ এর প্রভাব স্পষ্টভাবে পরিলক্ষিত হয়:

    ১. মাফাতীহুল গাইব ঃ

    আল্লামা ফখরুদ্দীন রাযী রহ.(মৃত: ৬০৪, ৬০৫, ৬০৬) তাফসীরে কাশ্শাফ থেকে আল্লামা যামাখশারী রহ. এর ইলমুল বালাগার সুক্ষ্ম সুক্ষ্ম কিছু বিষয় গ্রহণ করেছেন।

    ২. তাফসীরে গারায়ীবুল কুরআন ও রাগায়ীবুল ফুরক্বান ঃ

    আল্লামা নিযামুদ্দীন হাসান বিন মুহাম্মদ বিন হুসাইন আল-ক্বিম্মী রহ. (মৃত:৭২৮হি.) মুলত তাফসীরে কাশ্শাফ ও তাফসীরে মাফাতীহুল গাইব এর গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো একত্রিত করেছেন এবং নিজের পক্ষ থেকে কিছু সংযোজন করেছেন। তবে তাফসীরে ক্বিম্মী এর মাঝে তাফসীরে কাশ্শাফ এর সারাংশ রয়েছে।

    ৩. তাফসীরে বাহরুল মুহীত ঃ

    ইমাম আবূ হায়্যান রহ. (মৃত:৭৫৪ হি.) আল্লামা যামাখশারী রহ. ও ইমাম ইবনে আতীয়া রহ. (মৃত্যু:৫৪১) এর অনেক প্রশংসা করেছেন এবং তাদের তাফসীর ‘তাফসীরে কাশ্শাফ ও তাফসীরে ইবনে আতীয়া বা আল-মুহাররারুল ওয়াজিযকে শ্রেষ্ঠ তাফসীর আখ্যায়িত করেছেন। 

    আবূ হায়্যান রহ. যামাখশারী রহ. এর ভূয়শী প্রশংসা করা সত্ত্বেও অনেক স্থানে তার সমালোচনা করেছেন এবং তার ব্যাপারে কঠোর ভাষায় মন্তব্য করেছেন। এটা হল আল্লামা যামাখশারী রহ. এর আহলুস সুন্নাহর সাথে তার অযাচিত আচরণের প্রতিদান। কারণ যামাখশারী রহ. তাদের ব্যাপারে অনেক কঠোর ভাষা প্রয়োগ করেছেন। সুতরাং আল্লাহ তা‘আলা ইমাম আবূ হায়্যান রহ. কে যামাখশারী রহ. এর জন্য নির্বাচন করেছেন যে, তিনি হুবহু তার ভাষায়ই তার জওয়াব দিয়েছেন।

    ৪. আদ-দুররুল মাসূন ফী উলূমিল কিতাবিল মাকনূন ঃ

    ইমাম শিহাবুদ্দীন আবুল আব্বাস বিন ইউসূফ বিন মুহাম্মদ আস-সামীন আল-হালাবী (মৃত:৭৫৬হি:) তাফসীরে কাশ্শাফ এর উপর অনেক নির্ভর করেছেন এবং আল্লামা যামাখশারী ও ইমাম আবূ হায়্যান রহ. এর মাঝে বিরোধী বিষয়ে নিজেকে মিমাংসাকারী ভূমিকায় রেখেছেন। অনেক স্থানে আল্লামা যামাখশারী রহ. কে সাহায্য করেছেন এবং ইমাম আবূ হায়্যান রহ. এর পক্ষ থেকে যামাখশারী রহ. এর তীব্র বিরোধিতার খন্ডন করেছেন।

    ৫. তাফসীরে আনওয়ারুত্তানযীল ওয়া আসরারুত্তাবীল ঃ

    আল্লামা কাযী নাসিরুদ্দীন বায়যাবী রহ. (মৃত:৭৯১) নিজের লক্ষ্য বানিয়েছেন তাফসীরে কাশ্শাফকে সংক্ষিপ্ত করা, যামাখশারী রহ. এর ই‘তিযালকে বাদ দিয়ে তারঁ তাফসীরী বর্ণনার বিশ্লেষণ ও ইলমুল বালাগাতকে অবশিষ্ট রাখা।

    ৬. তাফসীরে মাদারিকুত্তানযীল ওয়া হাক্বায়িকুত্তাবীল ঃ

    আবুল বারাকাত আব্দুল্লাহ ইবনে আহমাদ বিন মাহমূদ আন-নাসাফী রহ. (মৃত: ৭১০হি:) মূলত তাফসীরে কাশ্শাফ ও তাফসীরে বায়যাবীর সংক্ষেপ করেছেন এবং তাফসীরে কাশ্শাফ এর ই‘তিযাল থেকে বিরত থেকেছেন।

    ৭. তাফসীরে ইরশাদুল আকলিস সালীম ইলা মাযায়াল কুরআনিল কারীম ঃ

    কাযী মুহাম্মদ ইবনে মুহাম্মদ ইবনে মুস্তফা আল-হানাফী রহ. (মৃত:৯৮২হি:) উল্লিখিত তাফসীরটিও তাফসীরে কাশ্শাফ এর সারাংশের ব্যাখ্যা।

    এছাড়া পরবর্তী তাফসীর বিররায় এর যেকোন তাফসীর যেমন- ৮. তাফসীরে রুহুল মা‘আনী লিল আ-লূসী। ৯. মাহাসিনুত্তাবীল লিল-কাসেমী। ১০. আল-মানার লি-রশীদ রেযা। ১১. আত-তাহরীর ওয়াততানবীর লিইবনে আসূর। অর্থাৎ পরবর্তী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত, মুু‘তাযিলা বা শিয়া যেকোন দলের তাফসীরই হোক সেটার উৎস তাফসীরে কাশ্শাফ।

    আল্লামা যামাখশারীর রহ. এর তাফসীর পদ্ধতি ঃ

    কুরআন কারীমের শাব্দিক বোধগম্য অর্থ গ্রহণ করা ঃ

    যামাখশারী রহ. লুগাতে আরবীর সহযোগিতায় কুরআন এর তাফসীর করতেন এবং লুগাতে আরবের মাধ্যমে কুরআনী আলফাযের অর্থ গ্রহণ করতেন। কারণ কুরআন কারীম অবতীর্ণ হয়েছে আরবী ভাষায় সুতরাং কুরআন কারীমের আলফায এর ব্যাখ্যার ব্যাপারে ও কুরআন বুঝার ক্ষেত্রে আরবী ভাষার নিয়ম-নীতির ব্যতিক্রম জায়েয নেই। যেমন- بسم الله الرحمن الرحيم এর মাঝে ‘ইসমুন’ ‘আল্লাহ’ ‘আর-রাহমান’ ‘আর-রহীম’ শব্দগুলোর তাফসীর করা হয়েছে আরবী ভাষার নিয়ম অনুসারে। 

    কুরআন কারীমের বিন্যাস রীতির সৌন্দর্য বর্ণনা করা এবং বিন্যাস রীতির বর্ণনার বিশ্লেষণ করা ঃ 

    কুরআন কারীমের তাফসীরের মাঝে যামাখশারী রহ. এর কর্ম পদ্ধতির নিয়ম-নীতি হল- কুরআনী বর্ণনাভঙ্গিকে অলংকার শাস্ত্রের আলোকে বিশ্লেষণ করা। কুরআন কারীম থেকে সুক্ষ্ম সুক্ষ্ম চমৎকার বিষয়গুলো উদঘাটন করা। যেমন- وَقَالُوا لَوْلَا أُنْزِلَ عَلَيْهِ مَلَكٌ وَلَوْ أَنْزَلْنَا مَلَكًا لَقُضِيَ الْأَمْرُ ثُمَّ لَا يُنْظَرُونَ (৮) এ আয়াতের তাফসীরে যামাখশারী রহ. কুরআন কারীমের বর্ণনা ভঙ্গির বিশ্লেষণ অলংকার শাস্ত্রের আলোকে করেছেন। যেমন:

      ومعنى { ثُمَّ } بعد ما بين الأمرين : قضاء الأمر ، وعدم الإنظار . جعل عدم الإنظار أشدّ من قضاء الأمر ، لأنّ مفاجأة الشدّة أشدّ من نفس الشدّة

     কুরআন কারীমের শব্দ বা বাক্যের অর্থ স্পষ্ট করতে প্রমাণসরূপ আরবী কাব্যসমূহ উদ্ধৃত করা ঃ 

    আল্লামা যামাখশারী রহ. নিজের তাফসীরের মাঝে আরবী কাব্য দ্বারা উদ্ধৃতি পেশ করার প্রতি আগ্রহী ছিলেন। তিনি আরবী শব্দের অর্থ বা বাক্যের ব্যাখ্যার ব্যাপারে আরবী কবিতা উদ্ধৃত করেন। এর জন্য প্রথমে তিনি কাব্যিকতাকে নিজের সহায়ক হিসেবে গ্রহণ করেন। কারণ তিনি অন্য বিভিন্ন শাস্ত্রের পাশাপাশি একজন কাব্য রচনাকারীও ছিলেন। দ্বিতীয় পর্যায়ে কাব্যিক সংস্কৃতি তার সহায়ক হওয়ার কারণ হল, তিনি জাহেলী ও ইসলামী যুগের অনেক আরবী কবিতাসমূহ মুখস্থ করেছেন। তিনি কবিতা দ্বারা এত বেশি উদ্ধৃতি উপস্থাপন করেছেন যে, কোন কোন স্থানে ৩ এর অধিক কবিতা দ্বারাও উদ্ধৃতি পেশ করেছেন।

    তাফসীর বিল মা‘ছূর অনেক কম উল্লেখ করা ঃ

    তিনি কুরআন এর এক আয়াত দ্বারা অন্য আয়াতের তাফসীর খুব কম করেছেন। যখন তাফসীরের মাঝে কোন আয়াত উল্লেখ করেন তখন উক্ত আয়াতকে তাফসীর বিল মা‘ছূর হিসেবে নয়; বরং কুরআন কারীমের শাব্দিক অর্থ স্পষ্ট করা বা কুরআন কারীমের কোন বাক্য বিশ্লেষণ করা অথবা ইলমুল বালাগাহর কোন নিয়ম বর্ণনা করার জন্য নিয়ে আসেন। যেমন- وَأُشْرِبُوا فِي قُلُوبِهِمُ الْعِجْلَ بِكُفْرِهِمْ قُلْ بِئْسَمَا يَأْمُرُكُمْ بِهِ إِيمَانُكُمْ إِنْ كُنْتُمْ مُؤْمِنِينَ (سورة البقرة-৯৩) এ আয়াতের মাঝে فِي قُلُوبِهِمُ এর ব্যাপারে বলেছেন যে, এটা হল وَأُشْرِبُوا এর স্থান। এ কথার দলীল পেশ করেছেন إِنَّ الَّذِينَ يَأْكُلُونَ أَمْوَالَ الْيَتَامَى ظُلْمًا إِنَّمَا يَأْكُلُونَ فِي بُطُونِهِمْ نَارًا এ আয়াত দ্বারা। তাফসীর বিল মা‘ছুর এর লেখকগণ এর মত এক আয়াতের তাফসীর অন্য আয়াত দ্বারা করার জন্য খুব কমই কোন আয়াত উল্লেখ করেন। 

     তাফসীরুল কুরআন বিস্সুন্নাহঃ 

    তিনি হাদীসের আলেম না হওয়া সত্ত্বেও কখনো হাদীসে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম দ্বারা কুরআন কারীমের তাফসীর করেছেন। এ জন্য তারঁ তাফসীরের মাঝে অনেক যয়ীফ, মওযূ হাদীস অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। অনেক সহীহ হাদীসও রয়েছে। ইমাম হাফেজ যায়লায়ী রহ. তাফসীরে কাশ্শাফে উল্লিখিত হাদীসগুলোকে তাখরীজ করেছেন আর তাঁর তাখরীজকে ইমাম হাফেজ ইবনে হাজার আসকালানী রহ. الكافي الشاف فى تخريج أحاديث الكشاف এর মাঝে সংক্ষিপ্ত করেছেন।

    তাফসিরে বায়যাবী ইসলামিয়া কুতুবখানা 

    আলহামদুলিল্লাহ্‌...... বাংলা, ইংরেজী, আরবীর ভাষার সকল ধরনের তাফসীরের এক বিশাল সংগ্রহশালা বইপার্ক ডট কম... কোরআন বুঝার জন্য তাফসীর পড়ুন, কোরআনের রঙ্গে নিজেকে রঙ্গিন করুন।

    ১. তাফসীরে ইবনে কাছীর ১১ খন্ড- ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ২. তাফসীরে ইবনে কাছীর ৯ ভলিউম- হুসাইন আল মাদানী থেকে প্রকাশিত

    ৩. তাফসীরে ইবনে কাছীর ২ ভলিউম- তাওহীদ প্রকাশনী

    ৪. তাফসীরে ইবনে কাছীর ৮ ভলিউম- আল কোরআন একাডেমী লন্ডন

    ৫. তাফসীরে মা’আরিফুল কোরআন ৮ খন্ড - ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ৬. তাফসীরে মা’আরিফুল কোরআন সংক্ষিপ্ত – মীনা বুক হাউস

    ৭. তাফসীরে ইবনে আব্বাস ৩ খন্ড - ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ৮. তাফহীমুল কুরআন ১৯ খন্ড- আধুনিক প্রকাশনী

    ৯. তাফসীরে উসমানী ৪ খন্ড- ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ১০. তাফসীরে জালালাইন ৭ খন্ড- ইসলামিয়া কুতুবখানা

    ১১. তাফসীরে মাজেদী ২ খন্ড- ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ১২. তাফসীরে জালালায়ান ২ খন্ড- ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ১৩. তাফসীরে আশরাফী ১০ খন্ডে- এমদাদিয়া লাইব্রেরী

    ১৪. তাফসীরে তাওযীহুল কোরআন ৩ খন্ডে- ইসলামিয়া কুতুবখানা

    ১৫. আনোয়ারুল কোরআন ৬ খন্ডে- ইসলামিয়া কুতুবখানা

    ১৬. তাফসীরে আহসানুল বায়ান- তাওহীদ প্রকাশনী

    ১৭. তাফসীরে বায়যাবী (সংক্ষিপ্ত)- ইসলামিয়া কুতুবখানা

    ১৮. তাফসীরে নূরুল কোরআন ৩০ খন্ড

    ১৯. তাফসীরে তাবারী ১২ ভলিউম- ইসলামিক ফাউন্ডেশন (অসমাপ্ত) 

    ২০. তাফসীরে মাযহারী ১৩ খন্ডে ইসলামিক ফাউন্ডেশন

    ২১. তাফসীর ফি যিলালিল কোরআন ২২ খন্ড

    ২২. শব্দার্থে আল কুরানুল কারীম-১০ খন্ড

    ২৩. শব্দে শব্দে আল কুরআন- ১৪ খন্ডে

    ২৪. তাফসীরে তাইসীরুল কোরআন ১ খন্ড তাওহীদ প্রকাশনী

    ২৫. তাফসীর তাদাব্বুরে কোরআন ৮ খন্ড (স্টক আউট) 

    আরবী ভাষায় প্রকাশিত কিছু তাফসীর-

    ১. তাফসীরে কাবীর

    ২. তাফসীর ইবনে কাসীর

    ৩. তাফসীর আল তাবারি

    ৪. তাফসীরে ইবনে আব্বাস

    ৫. আল কাশশাফ

    ৬. তাফসীরে কুরতুবী

    ৭. তাফসীর জালালাইন

    ৮. রূহুল বায়ান

    ৯. রুহুল মায়ানী

    ইংরেজী ভাষায় প্রকাশিত তাফসীর

    1. Tafsir ibne kathir 10 part

    2. In the Shade of Qur'an 30 part

    3. Tafheem-ul-Qur'an 6 part

    তাফসীরে বায়যাবী আরবি বাংলা ডাউনলোড 

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা হয়তো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় তাফসীরে বায়যাবী আরবী বাংলা পিডিএফ ডাউনলোড করতে চাচ্ছেন। কিন্তু হয়তো অনেকে খুঁজে পাচ্ছেন না। আর তাই আপনাদের জন্যই আমরা আমাদের আজকের পোস্টটি তৈরি করেছি।আজকে আমাদের পোষ্টে তাফসীরে বায়যাবী আরবী বাংলা পিডিএফ দেয়া হলো।পিডিএফ টি ডাউনলোড করতে আপনারা আমাদের পোষ্টে দেওয়া ডাউনলোড দা পিডিএফ লিংক এ ক্লিক করুন। এভাবে আপনারা পিডিএফ টি ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

    Download the pdf link

    Tag:তাফসিরে বায়যাবি, তাফসীরে বায়যাবী pdf, তাফসিরে বায়যাবী এর বৈশিষ্ট্য, তাফসিরে বায়যাবী ইসলামিয়া কুতুবখানা, তাফসীরে বায়যাবী আরবি বাংলা ডাউনলোড 

    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png