ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায় | neobux ও বাটন ফোনে টাকা আয় করার উপায় | ইউটিউব থেকে টাকা তুলব কিভাবে

ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায় | neobux ও বাটন ফোনে টাকা আয় করার উপায় | ইউটিউব থেকে টাকা তুলব কিভাবে

 


ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায়, মোবাইলে অনলাইনে আয় 2021, neobux থেকে আয়, ইউটিউব থেকে টাকা তুলব কিভাবে , বাটন ফোনে টাকা আয় করার উপায়, প্রতিদিন 500 টাকা আয় করুন

    মোবাইলে অনলাইনে আয় 2021 

    টাইম অফ বিডির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা এবং সালাম আসসালামু আলাইকুম রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আপনারা সবাই কেমন আছেন ? আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আপনারা অনেকেই হয়ত জানেননা ফেসবুক এবং অনলাইন থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। আর তাই আজকে আমাদের পোস্টে আমরা এগুলো সম্পর্কে আলোচনা করব।আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি তৈরি করা হয়েছে কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায় এর সম্পর্কে । আমাদের আজকের এই পোস্টের যা যা থাকছে সেগুলো হলোফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায়, মোবাইলে অনলাইনে আয় 2021, neobux থেকে আয়, ইউটিউব থেকে টাকা তুলব কিভাবে , বাটন ফোনে টাকা আয় করার উপায়, প্রতিদিন 500 টাকা আয় করুন ।আশা করি পুরো পোস্টটি আপনারা ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন এবং সঠিক তথ্যটি পাবেন।


    ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায় 

    ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শুরু করবঃ ফ্রিল্যান্সিং করার কমপ্লিট গাইড।আজ আমি আপনাদের সামনে একটি দারুন টপিক্স নিয়ে হাজির হলাম। আর সেটা হল ফ্রিল্যান্সিং। যদিও এই সম্পর্কিত অনেক পোস্টই গুগলে সার্চ করলে পাবেন। কিন্তু আমার এই পোস্ট তাদের থেকে একদমই ভিন্ন।

    কারণ আমার এই পোস্ট থেকে আপনি ফ্রিল্যান্সিং এর বেসিক ধারনার পাশাপাশি কিভাবে দক্ষতার সাথে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন তা হুবহু শিখতে পারবেন।

    আমাদের দেশে দিনে দিনে প্রায় সবারই ফ্রিল্যান্সিং এর প্রতি আগ্রহ বাড়ছে। যদিও এখন আমাদের দেশে ফ্রিল্যান্সিং একটি ভাল অবস্থানে আছে। তবে খুবই অল্প সংখ্যক লোক আছে যারা উচ্চমানের কাজ পাচ্ছে এবং অনেক ইনকাম করছে। কারণ দক্ষতার অভাবে আমাদের দেশের মানুষ খুবই কম ইনকাম করে থাকে এখান থেকে। আর বেশির ভাগ মানুষই কাজ পায় না।

    তাই আপনি কিভাবে দক্ষতার সহিত ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন সেই ট্রিক্সটা বলে দিবো। তার আগে ফ্রিল্যান্সিং এর বেসিক কিছু ধারণা নেওয়া যাক। কারণ কোন বিষয়ে বেসিক জ্ঞান না থাকলে কোন কিছুই শেখা যায় না।

    ফ্রিল্যান্সিং কি?

    প্রথম বিষয় হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে আপনার ক্লিয়ার ধারণা থাকতে হবে? কারণ এটা আপনাকে দক্ষ ফ্রিল্যান্সার হতে সহায়তা করবে।

    ফ্রিল্যান্সিং হল একটা মুক্ত পেশার কাজ। যা আপনি দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে করতে পারবেন। মনে করুন, আমেরিকার একজন লোক তার নিজের জন্য একটা ভিজিটিং কার্ড বানাবে। সে এর জন্য ১০ ডলার খরচ করবে। এখন সে পৃথিবীর যে কোন প্রান্তের দক্ষ লোককে দিয়ে তার এই কাজ ১০ ডলারের বিনিময়ে করিয়ে নেবে।

    যে লোকটি তার কাজ করে দিলো সেই ব্যক্তি মূলত ফ্রিল্যান্সিং এ কাজ করলো। কারণ ফ্রিল্যান্সিং এমন একটা কাজের মাধ্যম, যেখানে কাজ পাওয়ার জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘোরা লাগে না। বিপুল পরিমাণে কাজ আছে এখানে। ঐ আমেরিকার লোকের মত পৃথিবীর হাজার হাজার লোক আছে যারা তাদের কাজ এই ফ্রিল্যান্সিং থেকে করিয়ে নেয়।

    আর লক্ষ লক্ষ লোক এই ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে বাসায় বসে বা পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারে।

    ফ্রিল্যান্সিংটা কি, সেটা নিশ্চয়ই বোঝাতে পেরেছি।

    ফ্রিল্যান্সিং এর মাদ্ধমে ঘরে বসে রোজগারের এক অনন্য ব্যবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

    কিভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন?

    ফ্রিল্যান্সিং এ আপনি যে কোন ধরনের কাজ করতে পারবেন। কারণ এখানে হাজার হাজার ধরনের কাজ পাওয়া যায়। আপনাকে শুধু সঠিক পথ ধরে এগিয়ে যেতে হবে। ফ্রিল্যান্সিং করতে যেয়ে অধিকাংশ লোক এমন কিছু ভুল করে যা তাকে ফ্রিল্যান্সিং থেকে অনেক দূরে ঠেলে দেয়।

    ১। ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে জানুনঃ

    কিছু করতে হলে কিছু জানতে হবে। ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে যদি আপনি কাউকে জিজ্ঞেস করেন তাহলে দেখবেন বেশির ভাগ লোকই ভুল উত্তর দিচ্ছে। এমনি কি যারা প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সার, তাদের অনেকেই আছে যাদের কাছে যদি জিজ্ঞেস করা হয় যে, তাদের পেশা কি। তাহলে তারা উত্তর দিবে যে, তারা আউটসোর্সিং করে।

    কিন্তু এই ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং একসাথে মিলেয়ে ফেললে হবে না। কারণ দুইটাই আলদা জিনিস।

    আউটসোর্সিং

    আউটসোর্সিং বলতে বোঝায়, যখন কোন কম্পানি তাদের অফিসের বাইরের কাউকে কাজ দেয় করার জন্য তখন সেটা আউটসোর্সিং কাজ হয়। এটার মূল উদ্দেশ্য হল টাকা সেব করা।

    সুতরাং আপনি যদি কোন কম্পানি দ্বারা তাদের কোন কাজে নিযুক্ত হন তাহলে সেটাকে আউটসোর্সিং বলে। অর্থাৎ আপনাকে কম্পানির স্বাধীনমত কাজ করতে হবে।

    ফ্রিল্যান্সিং

    ফ্রিল্যান্সিং হল স্বল্প মেয়াদী কাজে চুক্তিবদ্ধ হয়ে নিজের ইচ্ছামত কাজ করা। যা আপনি নিজের সময়মত করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং হল নিজের স্বাধীনতা ভিত্তিক কাজ। আপনি কাজ না করলে কেউ আপনাকে চাপ প্রয়োগ করবে না।

    আপনি কত ইনকাম করতে পারবেন?

    আপনি ফ্রিল্যান্সিং এ আপনার ইচ্ছামত ইনকাম করতে পারবেন। যা নির্ভর করবে আপনার দক্ষতা ও কাজের উপর। তবে আপনি মাসে বাংলাদেশ থেকে ১০ হাজার ডলার বা তার বেশি ইনকাম করতে পারবেন। আর কাজ না পেলে মাস কেন, সারাবছরেও একটা ডলার ইনকাম করতে পারবেন না।

    আমি যখন ফ্রিল্যান্সিং শুরু করেছিলাম তখন মাসে ২০০ থেকে ৩০০ ডলার পর্যন্ত ইনকাম করতাম। তবে কয়েক মাস এই ভাবে কাজ করার পর আমার ইনকাম মাসে ১০০০ ডলারে পৌছে। আর দিনে দিনে এই ইনকাম আমার বাড়তেই রয়েছে। ( ১ ডলার = ৮৪ টাকা। তবে ডলারের মূল্য মাঝে মাঝে কম বেশি হয় )

    একজন বাংলাদেশী হিসাবে, মাসে এই টাকা ইনকাম মানে হিউজ পরিমাণ ইনকাম।

     neobux থেকে আয় 

    Neobux অনেক প্রচলিত, বিশ্বাসী এবং বিখ্যাত একটি online PTC website যেখানে আপনারা সার্ভে করার সাথে সাথে অন্য অনেক ধরণের কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন।

    যেমন, অনলাইন বিজ্ঞাপন দেখে এখান থেকে টাকা আয় করা সম্ভব।

    পিটিসি ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম করুন আমি ইন্টারনেটে অনেক রিভিউ পড়েছি যেখানে লােকেরা neobux কে trusted এবং genuine website হিসেবে বলেছেন। এবং অনেকে এখন থেকে প্রত্যেক মাসে মাসে টাকা আয় করছেন।

    তাছাড়া, direct এবং rental referrals এর মাধ্যমে টাকা আয়ের পরিমান বৃদ্ধি করতে পারবেন।

    Neobux বিশেষ করে, paid survey করে এবং বিজ্ঞাপন দেখে টাকা আয় করার জন্য সেরা ওয়েবসাইট।

    ইউটিউব থেকে টাকা তুলব কিভাবে 

    ইউটিউব থেকে টাকা তোলার জন্য প্রয়োজন ইউটিউব থেকে আয় করা এবং ইউটিউব মনিটাইজ অন করা।

    যদি আপনার চ্যানেল মনিটাইজ হয়ে থাকে তাহলে ইউটিউব এর মাধ্যমে গুগােল এডসেন্স থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

    যখন আপনার চ্যানেল মনিটাইজ হবে এবং আপনার এডসেন্সে যখন 10$ হবে। তখন আপনার এড্রেস ভেরিফিকেশনের জন্য, এডসেন্স একাউন্ট ক্রেইট করার সময় যখন, যেই ঠিকানার এড্রেসটি ব্যাবহার করেছেন, গুগােল এডসেন্স সেই ঠিকানায় এড্রেস ভেরিফিকেশন করার জন্য আপনাকে এডসেন্সের চিঠি পাঠিয়ে দিবে। চিঠি আসতে পারে ১৫ থেকে ৪৫ দিনের মধ্যে যদি কোন কারনে চিঠি না আসে তাহলে আপনার পােষ্ট অফিসে যােগাযােগ করবেন।

    চিঠি আপনার হাতে আসলে, চিঠির ভিতরে পিন নাম্বারটি এডসেন্সে সাবমিট করে, এড্রেস ভেরিফিকেশন করতে হবে। যখন আপনার এডসেন্সটির এড্রেস ভেরিফিকেশন হলে তারপর থেকে আপনার এডসেন্সে মিনিমান 100$ ডলার বা এর উপরে হলে ইউটিউব এর মাধ্যমে এডসেন্সের ডলার আপনার ব্যাংক একাউন্টে বাংলা টাকায় নিয়ে নিতে পারবেন।

    বাটন ফোনে টাকা আয় করার উপায় 

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা অনেকেই জানতে চেয়েছেন বাটন ফোনে টাকা আয় করা যায় কিনা আর তাই আজকে আমাদের এই পোস্টটি তৈরি করেছে বাটন ফোন থেকে টাকা কিভাবে আয় করতেন তার উপর বিশ্লেষণ করে। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

    অনলাইনে কাজ করার জন্য উচ্চ লেভেলের ব্রাউজার দরকার হয় যা জাভা মােবাইলে থাকেনা তাই অনলাইন থেকে জাভা মােবাইল দিয়ে আয় করা সম্ভব হয়না তবে এমন কিছু ওয়েবসাইট আছে যেগুলােতে জাভা মােবাইল দিয়ে লেখালেখি করে আয় করতে পারবেন তবে এই ধরনের ওয়েবসাইটের সংখ্যা খুবই কম


    প্রতিদিন 500 টাকা আয় করুন 

    আপনি কি কোনো প্রকার ইনভেস্ট চাড়াই অনলাইনে

     আয় করতে চান?

    আপনার নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজার করে এবং অন্যকে বাজার করতে উৎসাহিত করে আপনি একটা ইনকাম

    অনলাইন মার্কেটিং এর মাধ্যমে প্রতিদিন 100/500 টাকা আয় করতে চান এবং এখানে 1000/5000 টাকা উপার্জন করার সুযোগ আছে যদি করতে পারেন।

    কোনো ধরনের বিনিয়োগ ছাড়াই। বন্ধুরা এটা আমাদের বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠান।

    $$$ স্বপ্নের ইনকাম $$$$

    বাংলাদেশে এই প্রথম E-Commerce নিয়ে এলো Amarbazarltd.com

    আপনার Refer ID দিয়ে আপনি আপনার বন্ধুদের কাজ করান এবং আপনার ইনকাম বাড়ান। শুধু তাই নয়, আপনার বন্ধুরাও যখন কাজ করাবে ওখান থেকেও আপনি উপার্জন পাবেন।এইভাবেই আপনার নীচে ৫ জেনারেশন থেকে ইনকাম আসবে।

    Generation Income

    Level-1: 30%

    Level-2: 20%

    Level-3: 20%

    Level-4: 20%

    Level-5: 10%

    সবমিলিয়ে আপনি ৮ ধরনের আয় করতে পারবেন

    আপনার উপার্জনের টাকা আপনি আপনার নগদ একাউন্ট থেকে তুলে নিতে পারবেন। 

    আপনার জীবন বদলে যাবে মাত্র ৬/১২ মাসে, যে বন্ধু মন দিয়ে কাজ করবে। কারন অনেক ইনকাম আছে। ক্যারিয়ার তৈরির সুযোগ রয়েছে।Company সম্পর্কে আর ও বিস্তারিত জানতে চাইলে আমাদের ফোন করুন। তাই বন্ধুুরা আজই শুরু করুন এবং আপনার বন্ধুদের নিয়ে আপনার বিশাল Team গঠন করুন। কারন আপনার টিম যত বড় হবে আপনার ইনকাম ও তত বেশি হবে। 


    Tag:ফ্রিল্যান্সিং করে কত টাকা আয় করা যায়, মোবাইলে অনলাইনে আয় 2021, neobux থেকে আয়, ইউটিউব থেকে টাকা তুলব কিভাবে , বাটন ফোনে টাকা আয় করার উপায়, প্রতিদিন 500 টাকা আয় করুন 

    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png