একাউন্ট খুলে অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম ২০২১ | পিটিসি সাইট থেকে মোবাইলে আয় | অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায়

একাউন্ট খুলে অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম ২০২১ | পিটিসি সাইট থেকে মোবাইলে আয় | অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায়

 


মোবাইলে আয় , ঘরে বসে কিভাবে টাকা আয় করা যায়, পিটিসি সাইট থেকে আয়, অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম ২০২১, একাউন্ট খুলে টাকা আয়, অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায়

    মোবাইলে আয়

    টাইম অফ বিডির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা এবং সালাম আসসালামু আলাইকুম রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আপনারা সবাই কেমন আছেন ? আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আপনারা অনেকেই হয়ত জানেননা ফেসবুক এবং অনলাইন থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। আর তাই আজকে আমাদের পোস্টে আমরা এগুলো সম্পর্কে আলোচনা করব।আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি তৈরি করা হয়েছে কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায় এর সম্পর্কে । আমাদের আজকের এই পোস্টের যা যা থাকছে সেগুলো হলোমোবাইলে আয় , ঘরে বসে কিভাবে টাকা আয় করা যায়, পিটিসি সাইট থেকে আয়, অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম ২০২১, একাউন্ট খুলে টাকা আয়, অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় ।  আশা করছে পুরো পোস্টটিি আপনার ধৈর্য সহকারেেেেেে পড়বেন এবং সঠিক তথ্যটি পাবেন।

     ঘরে বসে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

    প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে বেড়েছে মানুষের কর্ম পরিসর। অনলাইনে অর্থ উপার্জনের অনেক মাধ্যম তৈরি হয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক সত্য, আমরা অনেকেই সেগুলোর সদ্ব্যবহার করতে পারছিনা শুধুমাত্র সঠিক ধারণা নেই বলে। কত লোক বেকার বসে আছে, চাকরির অভাবে হতাশায় ভুগছে, যেটুকু কাজে লাগিয়ে অনায়াসেই কিছু ইনকাম করা যায়, জীবনযাত্রার মান আরো একধাপ উন্নত করা যায়।

    অনলাইনে কিভাবে অর্থ উপার্জন করবেন এ প্রশ্নের উত্তরে অনেক গুলো কাজের কথাই বলা যায়। তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় হলো :

    ১. ফ্রিল্যান্সিং

    অনলাইনে আয়ের প্রসঙ্গ আসলে সবার প্রথমে যে শব্দটি উচ্চারিত হয় সেটা হল ফ্রীল্যান্সিং (Freelancing)। এটিই অনলাইনে আয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম। বর্তমানে ফ্রীল্যান্সিং এর মাধ্যমে আমাদের দেশের হাজার হাজার মানুষ ঘরে বসে আয় করছে। এই মাধ্যমটিকে আরো জনপ্রিয় করে তোলার জন্য সরকারি বেসকারি সংস্থা কোর্স ও ট্রেনিং এর ব্যবস্থা ও করছে। অনেকেই ফ্রিল্যানসিংয়ের প্রশিক্ষণ নিয়ে স্বাবলম্বী হয়েছেন, অনেকেই আয় করছেন লাখ লাখ টাকা।

    ২. নিজের ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি

    ফ্রিল্যান্সিং মূলত অন্যের অধীনে কাজ করা। যারা সেটা না করে নিজে কিছু করতে চান তাদের জন্য ভাল একটি অপশন হল নিজের একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি।

    নিজের ওয়েবসাইট তৈরি করা এখন আর আহামরি কঠিন কাজ নয়! ওয়েবসাইট হতে পারে অনেক কিছু নিয়ে। কোন বিষয়গুলোতে আপনি এক্সপার্ট সেগুলো নিয়েই ওয়েবসাইট তৈরি করুন। এটা হতে পারে লেখালেখির কিংবা বিজনেস ওয়েবসাইট। কিভাবে বানাবেন কি নিয়ে বানাবেন তার পূর্ণাঙ্গ দিকনির্দেশনা নিয়ে ইউটিউবেও অনেক টিউটোরিয়াল পাবেন। সেগুলো দেখে একটি মোটামুটি মানের ওয়েবসাইট আপনি বানিয়ে নিতে পারবেন। আর যদি প্রফেশনাল ওয়েবসাইট বানাতে চান তাহলে ডেভেলপার দিয়ে বানিয়ে নিতে পারেন অথবা নিজেই একটি ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের কোর্স করে শিখে ফেলতে পারেন প্রফেশনাল কাজ।

    আপনার ওয়েবসাইট এ যখন প্রচুর দর্শক বা পাঠক আসবে তখন আপনি গুগল এডসেন্স কিংবা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে আয় করতে পারবেন। এগুলো নিয়ে পরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক বা দর্শক যত বেশি হবে, আপনার আয় ও তত বেশি হবে।

    ৩. ইউটিউব

    লেখালেখিতে যারা উৎসাহ বোধ করেন না, কিন্তু ক্যামেরা নিয়ে কাজ করতে ভালবাসেন অথবা ভিডিও সম্পাদনায় পারদর্শী তারা আয় করার মাধ্যম হিসেবে বেছে নিতে পারেন ইউটিউব কে। ইউটিউব চ্যানেলে নিত্যনতুন আইডিয়া নিয়ে ভিডিও বানিয়ে এখন অনেকেই লাখ টাকাও আয় করছেন। তবে ব্লগিং এর মত এক্ষেত্রেও মাথায় রাখতে হবে, কোন বিষয়ে মানুষ ভিডিও দেখতে চায়, কিংবা কি দেখালে আপনি দর্শক ধরে রাখতে পারবেন। সেরকম বিষয় খুঁজে নিয়ে তার উপর ভাল মানের সৃজনশীল ভিডিও বানাতে হবে। তাহলে খুব দ্রতই আপনার ইউটিউব চ্যানেল দর্শকপ্রিয় হবে আর আপনি আয় শুরু করতে পারবেন। সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা, ভিডিও দেখার সময় ইত্যাদির ওপর ভিত্তি করে প্রতি হাজার "ভিউ" হিসেবে গুগল আপনাকে অর্থ প্রদান করবে।

    এছাড়া ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয়ের উৎস হিসেবে আপনি গুগল এডসেন্স বা মনিটাইজেশন বা এফিলিয়েট মার্কেটিং ব্যাবহার করতে পারেন। এছাড়া আপনার চ্যানেল জনপ্রিয় হলে বিভিন্ন কোম্পানি আপনাকে স্পন্সরশিপ অফার করতে পারে, যেটা হতে পারে আয়ের বড় উৎস।

    ৪. অনলাইন ব্যবসা

    বর্তমানে ঘরে বসে লাখপতি হওয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় হলো অনলাইন ব্যবসা। আপনার হাতে কিছু পুঁজি ও একটি স্মার্টফোন থাকলেই ব্যবসায় নেমে যেতে পারেন। অনলাইন ব্যবসার ক্ষেত্রে অনেক বেশি পুঁজির ও প্রয়োজন হয়না অনেক ক্ষেত্রে। প্রয়োজন যুগোপযোগী ও সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা ও তা বাস্তবায়নের সঠিক কর্মপন্থা। অনেকেই এখন হুটহাট করে ব্যবসা শুরু করে দিচ্ছেন ঠিকই , কিন্তু সমন্বয়ের অভাবে টিকে থাকতে পারছেন না। সঠিক গাইডলাইন অনুসরণ করে ধৈর্য সহকারে লেগে থাকতে পারলেই কেবল ব্যবসায় সফল হওয়া সম্ভব।

     পিটিসি সাইট থেকে আয় 

    অনলাইন আয় করার বিভিন্ন ধরনের মাধ্যম আছে।প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মানুষ অনলাইনে বিভিন্ন পেশার সাথে যুক্ত হচ্ছে এবং বেকারত্ব জয় করছে। তেমনি পিটিসি একটি সাইট যে সাইট থেকে অনেক সহজে টাকা আয় করা যায়।আর তাই আজকে আমাদের এই পোস্টটি তৈরি করেছি পিটিসি সাইট থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায় এ সম্পর্কে বিশ্লেষণ করে দয়া করে পুরো পোস্টটি আপনার ধৈর্য সহকারে পড়বেন তাহলে বুঝতে পারবেন।

    অনলাইন এ আয় করার অনেক প্রচলিত পদ্ধতি আছে। ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় নিয়ে বাংলাদেশে অনেক গল্প শোনা যায়, টিউন দেখা যায়। সত্যি ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করা যায়? হ্যাঁ যায়, তবে স্বপ্নের মতো আয় করা যায় না, শ্রম করে আয় করতে হয়। এর জন্য নিজেকে প্রস্তুত করা একান্ত প্রয়োজন।

    বাংলাদেশে প্রচলিত নতুনদের অনলাইনে আয়ের সবচেয়ে সহজ উপায় হলো পিটিসি। এ পদ্ধতিতে বিভিন্ন পিটিসি সাইটে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করে, প্রতিদিন লগ ইন করে কিছু লিংকে ক্লিক করে নির্দিষ্ট সময় অপেক্ষা করতে হয় এবং এ থেকে আয় হয় কিন্তু ব্যাল্যান্স উত্তোলন করতে গেলেই বিপাকে পড়েন কারন অধিকাংশ পিটিসি সাইট পেমেন্ট দেয়না আর যারা পে করে তাদের আয় দিয়ে আপনি ইন্টারনেটের বিল উত্তোলন করতে পারবেন না।

    তাই পিটিসিকে বাদ দিয়ে আমরা দেখবো কিভাবে সহজ উপায়ে অনলাইনে টাকা আয় করা যায়

    অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম 2021 

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা অনেকেই জানতে চেয়েছেন কি কিভাবে আমরা অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারি। আর তাই আপনাদের সুবিধার্থে আমরা আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি তৈরি করেছি কি কি উপায়ে আমরা অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারি তার উপর বিশ্লেষণ করে।বিভিন্ন ধরনের মাধ্যম আছে যার মাধ্যমে আমরা একটি স্মার্টফোন বা ল্যাপটপের মাধ্যমে অনলাইন থেকে প্রচুর টাকা আয় করতে পারি। তার মধ্যে একটি হলো অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম।আমরা অনেকেই হয়তো এই ব্যাপারে জানিনা যে এড দেখে টাকা ইনকাম করা যায়। বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস আছে যে এপস গুলোর মধ্যে ভিডিও দেখলে টাকা ইনকাম হয়। এসব অ্যাপসে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও দেওয়া থাকে যে সব ভিডিও গুলো দেখে টাকা ইনকাম হয়। কিছু ভিডিও আছে কম সময়ের কিছু ভিডিও আছে বেশী সময়ের।পেশাব আয়াতগুলো থেকে এড দেখে টাকা ইনকাম করা যায় তার মধ্যে একটি অ্যাপ হলSPC world express. এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি ভিডিও দেখে অনেক টাকা আয় করতে পারেন

    একাউন্ট খুলে টাকা আয়

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা হয়ত বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় খুঁজছেন একাউন্ট খুলে কিভাবে টাকা আয় করা যায়?আর তাই আজকে আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের জন্যই তৈরি করেছি আজকে আমাদের পোস্টে রয়েছে একাউন্ট খুলে কিভাবে টাকা আয় করা যায় সম্পর্কে বিস্তারিত বিশ্লেষণ।রিং আইডি অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে আপনারা রেফার করে টাকা আয় করতে পারেন বিস্তারিত জানতে পুরো পোস্টটি ধৈর্য সহকারে পড়ুন।

    Ring_ID... প্রতি একাউন্ট এ ৫০ টাকা।

    আপনারা যারা যারা এখনো Ring ID App এ একাউন্ট করেননি দ্রুত একাউন্ট করে নেন। আর পাবেন প্রতি একাউন্টে 50 টাকা এবং 3 ringbit ((রিং আইডি কোম্পানির শেয়ার। 

    আপনারা যারা এখনো ring ID একাউন্ট করেন নি দ্রুত একাউন্ট করে নিন। নতুন Ring ID অ্যাকাউন্ট খুললেই 50 tk Bonus

    একাউন্ট_করার_নিয়মঃ

    1/ প্রথমে আপনার Play Store অথবা App store থেকে ring ID Apps টা ডাউনলোড করে নিবেন এবং App টা ওপেন করুন।

    2/ আপনার মোবাইল নাম্বার দিন, আপনার সিমে ৪ ডিজিটের ভেরিফাই কোড যাবে কোডটা বসিয়ে দিবেন।

    3/ আপনার নাম দিন।

    4/ পাসওয়ার্ড দিতে বলবে Skip করে দিন।

    5/ তারপর আপনাকে রেফার কোড দিতে বলবে Add Reffer এই 22855420 কোড টা দিয়ে Refer now ক্লিক করবেন এবং সাথে সাথেই 50 TK Bonus পাবেন।

    মনে রাখবেন এই রেফার কোড টা ভুল করলে আপনি কিন্তু একাউন্ট করে 50 টাকা পাবেন না।

    রেফার না করলে কিছুদিন পরেই আইডি ব্যান করে দেয় তাই অবশ্যই রেফার কোড 22855420 টা দিবেন।

    বিঃদ্র: :--- Account করে রেফার

    করলেই 20 টাকা অ্যাড হয়ে যাবে আপনার অ্যাকাউন্ট এ .. যে কোন ফোন নাম্বার দিয়ে খুলতে পারবেন। আপনার যতটি সিম আছে ততবার অ্যাকাউন্ট খুলবেন কারন প্রতিবার 20 টাকা অ্যাড হবে আপনার অ্যাকাউন্ট এ আর সাথে ৫০ টাকা বোনাস তো আছেই। কিছুদিনের মধ্যে 1000 থেকে 2000 টাকা ব্যালেন্স হয়ে যাবে রেফার করতে করতে।

    তাই যারা আগে অ্যাকাউন্ট খুলেন নাই তাড়াতাড়ি খুলে ফেলুন, রেফার এর টাকা দিয়ে কয়েন নিয়ে সেল দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

     ২৪০+ ব্যালেন্স থাকলে কয়েন নিয়ে সেল দিতে পারবেন।

     অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় 

    প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনারা হয়তো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন কিংবা খুঁজছেন। আর তাই আপনাদের জন্য আমরা আজকে আমাদের এই পোস্টটি তৈরি করেছি। আজকে আমাদের এই পোস্টে আমরা আলোচনা করেছি অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় গুলো সম্পর্কে। দয়া করে পুরো পোস্টটি আপনারা ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন তাহলে জানতে পারবেন কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করা যায়। অনলাইন থেকে আয় করার নিশ্চিত উপায় গুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন।

    যারা ফ্রিল্যান্সিংয়ে ক্যারিয়ার গড়তে আগ্রহী, চোখ রাখুন আমার বিভাগ ভিত্তিক তৈরি প্রতিটি টিউনে যা আপনাকে সহায়তা করবে আপনার ভবিস্যৎ ফ্রিল্যান্সিংয়ে ক্যারিয়ার গড়তে।

    গত সংখ্যায় আমরা ফ্রি ব্লগিং নিয়ে বেশ কিছু আলোচনা করেছিলাম। এবং কিভাবে খুব সহজেই আপনি নিজের জন্য একটি ব্লগসাইট তৈরী করতে পারেন তা দেখেছিলাম। ওই ব্লগে আপনি পন্যের প্রচারনা করে আয় করতে পারেন। তবে একটি বিষয় গুরুত্বপূর্ণ ব্লগ সাইট নিয়মিত আপডেট করতে হয়। আপনার ব্লগ সাইটে সবসময় নতুন নতুন এবং প্রয়োজনীয় তথ্য দিতে হবে। আপনি যদি নিয়মিত আপনার ব্লগে লেখালেখি করতে না পারেন তখন অন্য লোককে দিয়ে তা করাতে পারেন।

    আপনি বিভিন্ন নিবন্ধ লিখতে পারেন আর আপনার আর্টিকেল বা নিবন্ধ যতো বেশি পাঠক পড়বে, আপনি ততো বেশি টাকা আয় করতে পারবেন।

    এডসেন্সের মাধ্যমে আয় রোজগার করতে পারেন কিন্তু, এখানে ইনকাম করার পূর্বে আপনাকে একটা তথ্যসমৃদ্ধ ওয়েবসাইট তৈরী করে নিতে হবে। অন্যথায় এই সেক্টরে আপনি অবহেলিত হবেন।

    বাংলাদেশে ঘরে বসে ফ্রিলেন্সিং করে আয় রোজগারের একটা চমৎকার সুযোগ রয়েছে। আপনি যদি ওয়েব ডিজাইন, ডাটা এন্ট্রি, এডিটিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন অথবা অনলাইন মার্কেটিং এ দক্ষতা থাকে তাহলে, আপনি অনলাইনে এসব কাজ করে আয় রোজগার করতে পারেন। আপনি চাইলে ফ্রিলেন্সিং ভিত্তিক একটা ক্যারিয়ারই গড়ে তুলতে পারেন।

    Tag:মোবাইলে আয় , ঘরে বসে কিভাবে টাকা আয় করা যায়, পিটিসি সাইট থেকে আয়, অ্যাড দেখে টাকা ইনকাম ২০২১, একাউন্ট খুলে টাকা আয়, অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় 


    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png