অনলাইনে ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ | গেম খেলে ও বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম

অনলাইনে ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ | গেম খেলে ও বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম



টাকা ইনকাম apps, অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১, বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম ,গেম খেলে টাকা আয়, মোবাইল দিয়ে টাকা আয়, মোবাইলে অনলাইনে আয়


    মোবাইলে অনলাইনে আয় 

    টাইম অফ বিডির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা এবং সালাম আসসালামু আলাইকুম রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আপনারা সবাই কেমন আছেন ? আশা করি সবাই আল্লাহর রহমতে ভাল আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আপনারা অনেকেই হয়ত জানেননা ফেসবুক এবং অনলাইন থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করা যায়। আর তাই আজকে আমাদের পোস্টে আমরা এগুলো সম্পর্কে আলোচনা করব।আমাদের আজকের এই পোষ্ট টি তৈরি করা হয়েছে কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায় এর সম্পর্কে । আমাদের আজকের এই পোস্টের যা যা থাকছে সেগুলো হলো টাকা ইনকাম apps, অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১, বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম ,গেম খেলে টাকা আয়, মোবাইল দিয়ে টাকা আয়, মোবাইলে অনলাইনে আয় । আশা করি আপনারা সঠিক তথ্যটি পাবেন এবং পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন।


    টাকা ইনকাম apps

    টাকা ইনকাম করার জন্য বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস আছে আর এই অ্যাপস থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ টাকা আয় করছে। আপনিও একটি অ্যাপ থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন। আমরা আমাদের আজকের এই পোস্টে একটি অ্যাপস দিয়ে কিভাবে টাকা আয় করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি আশা করছি আপনারা পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন।

    ঘরে বসেই দিনে 500-1000টাকা ইনকাম করুন খুব সহজেই,,

    স্বল্পমূল্যে -

     9 জন হাউস,

    15 জন ডিজিএম,

    7 জন ডিলার ও 

    100 জন রিটেলার নিয়োগ চলছে-সকল জেলায়। 

    আপনি চাইলে ঘরে বসে একটি মাত্র অ্যাপস এর মাধ্যমে বাংলালিংক, গ্রামিন,রবি,এয়ারটেল,টেলিটক, ইস্কিটো মোট ৬ টা সিমের ফ্লেক্সিলোড দিতে পারবেন। 

    হাউস ফি : 6000টাকা মাত্র।

    ডিজিএম ফি:2500 টাকা মাত্র।

    ডিলার ফি: 800 টাকা মাত্র। 

    রিটেলার ফি: 350 টাকা মাত্র। 

    ( সীমিত সময়ের জন্য )

    আপনার বর্তমান সিমটি কে ফ্লেক্সিলোড এর রেজিষ্ট্রেশন করে দেওয়া হবে।

    আপনি যে সকল সুবিধা পাবেন,

    প্রতি ১ হাজারে 37টাকা কমিশন পাবেন (হাউস এ)

    প্রতি ১ হাজারে 34 টাকা কমিশন পাবেন 

    (ডিজিএম)

    প্রতি ১ হাজারে 31টাকা কমিশন পাবেন (ডিলার)

    ১। ডিজিএম নিলে আপনিও আনলিমিটেড ডিলার এবং রিটেলার অ্যাকাউন্ট বিক্রি করতে পারবেন।

    ২। ডিলার নিলে আপনিও আনলিমিটেড রিটেলার অ্যাকাউন্ট বিক্রি করতে পারবেন।

    ৩।রকেট,নগদ,বিকাশ,ucash,mcash,বিদ্যুৎ বিল চালু হবে কাছ চলতিছে

    মিনিট ও এম্বি প্যাক সেল দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন এবং প্রতিদিনের কমিশন প্রতিদিন পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ। 

    মাসিক কোনো টার্গেট এর ঝামেলা নেই এবং কোনো প্রকার চার্জ নেই।

    লোড এর জন্য টাকা আমাদের কাছ থেকে নিতে পারেন।

    অ্যাপস, ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে লোড দিতে পারবেন। যেকোনো ফোন দিয়ে লোড দিতে পারবেন। এছাড়া কম্পিউটার দিয়ে লোড দিতে পারবেন।

    ২ বার করে নাম্বার, 

    ২ বার করে পিন কোড বসানোর ঝামেলা নেই।

    আমাদের থেকে যে সকল সুবিধা পাবেন 

    ২৪ ঘন্টা কাস্টমার কেয়ার এর সুবিধা। 

    খরচ কম ১ টার বেশি মোবাইল লাগছে না।

    অটো ফ্লেক্সিলোড এর সুবিধা (সার্ভার এর মাধ্যমে)

    ৫-১০ সেকেন্ড এর মধ্যে ফ্লেক্সি যাওয়ার সুবিধা। 

     অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১

    2021 সালে ডিজিটাল মার্কেটিং হতে পারে তরুণদের জন্য সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য পেশা

    বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ।বর্তমানে নিত্য নতুন তথ্য প্রযুক্তির নতুন নতুন নির্ভরযোগ্যতা পেশা তৈরি হচ্ছে। মানুষ এখন অনলাইনে দিকে ছুটছে। কারণ এখন সবার হাতে হাতে স্মার্টফোন আছে এখন যে কেউ চাইলেই হাতের স্মার্টফোনটি দিয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারেন। দিনদিন সৃষ্টি হচ্ছে মানুষের নতুন নতুন কর্মসংস্থান। অনলাইনে টাকা ইনকাম করার জন্য বর্তমানে অনেকগুলো প্ল্যাটফর্ম আছে তার ভিতরে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং উল্লেখযোগ্য প্লাটফর্ম হলো ডিজিটাল মার্কেটিং।

    ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য আপনি আপনার একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল বা কম্পিউটারে যথেষ্ট, এছাড়াও প্রয়োজন আপনার ইচ্ছাশক্তি মনোবল এবং ধৈর্য থাকতে হবে। তাহলে আপনি অনলাইন থেকে বা ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ডিজিটাল মার্কেটিং এমন একটি মাধ্যম যার মাধ্যমে আপনি আপনার দক্ষতা কে ব্যবহার করে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তো চলুন ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে একটু জেনে নেই।

    ডিজিটাল মার্কেটিং কি?

    সাধারণত আমরা মার্কেটিং বলতে বুঝি কোন পণ্য বিক্রি করা বা প্রচার করা বা কোন পণ্যের বিজ্ঞাপন দেওয়া। কিন্তু যখন আমরা অনলাইনে বা ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমার আমাদের পন্য বিক্রি করি বা প্রচার করি, বিজ্ঞাপন দেয় তখনই এটা ডিজিটাল মার্কেটিং। এক কথায় হলো অনলাইন ভিত্তিক কেনাকাটা করাই হল ডিজিটাল মার্কেটিং।

     ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রকারভেদঃ

    ডিজিটাল মার্কেটিং কয়েক ধরনের রয়েছে এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হলো সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, ডিজিটাল ডিসপ্লে বিজ্ঞাপন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, ইমেইল মার্কেটিং ইত্যাদি।

    ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং এর গুরুত্ব কতটুকুঃ

    এ তথ্য প্রযুক্তির যুগে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং এ ক্যারিয়ার গঠন করতে পারেন। বর্তমানে ঘরে বসেই আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং করতে পারেন।অন্যদিকে আপনার পছন্দমতো সময় ঠিক করে কাজ করে ঘরে বসেই উপার্জন করতে পারবেন। আধুনিকতার যুগে ডিজিটাল মার্কেটিং এর ছোঁয়া আগামী পাঁচ বছরে বাংলাদেশে ছড়িয়ে যাবে দ্রুততার সাথে।আর ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর দক্ষতা থাকলে আপনি শুধু বাংলাদেশি ক্লায়েন্টের কাজ নয়, বাংলাদেশিদের পাশাপাশি বিদেশি ক্লায়েন্টের ও কাজ করতে পারবেন ঘরে বসেই।

    বর্তমানে আমরা সারাদিন ফেসবুক নিয়ে পড়ে থাকে, সারাদিন মুভি দেখি এবং ইন্টারনেট ঘাঁটাঘাঁটি করে সময় নষ্ট করি এবং সারা দিন মেসেঞ্জারে ফ্রেন্ডের সাথে চ্যাটিং করি, আমরা চাইলে এই সময়টুকু কাজে লাগিয়ে আমরা আমাদের ডিজিটাল মার্কেটিং এ নিজেকে দক্ষ করতে পারি।আমরা ফেসবুকের মাধ্যমে ফেসবুক মার্কেটিং এর কাজ করে বেশ ভালো অঙ্কের টাকা উপার্জন করতে পারি।যেমন: এখানে ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটি সেক্টর ফেসবুক মার্কেটিং, ফেসবুক মার্কেটিং এর কাজে আপনি দক্ষ হতে পারলে অবশ্যই উপার্জন করা সম্ভব।

    মনে করুন আপনি একটি নতুন কাপড়ের দোকান দিলেন বা প্যান্ট শার্ট এর দোকান দিলেন। এখন আপনার নতুন অবস্থায় কাস্টমার পাওয়া খুবই কঠিন, আপনি চাইলে নতুন অবস্থায় আপনার এই প্যান্ট শার্ট বা ড্রেস আপনি ফেসবুক পেজের মাধ্যমে আপনি সেটি বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। আর তখন যদি আপনার পণ্যটি অন্য কারো পছন্দ হয়, তখন সে অনলাইনে আপনাকে অর্ডার দিতে পারবে এবং আপনি এই পণ্যটি কুরিয়ারের মাধ্যমে ক্যাশ অন ডেলিভারি দিতে পারবেন। এভাবে কিন্তু ফেসবুকের মাধ্যমে খুব ভালো একটা টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

    বিশেষ করে আগামীর দিনগুলোতে। যেমন: ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্যতম আর ও একটি সেক্টর হচ্ছে এসইও। এখন দিনেদিনে মানুষ নিজের ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট, প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট, ব্যবসায়ীক ওয়েবসাইট খুলছে আর সেইসব ওয়েবসাইটের জন্য ভিজিটর (পাঠক) এর গুরুত্ব অনেক।আর সেই সব পাঠককে অর্গানিকভাবে গুগল থেকে নিজের ওয়েবসাইটে আনার জন্য এসইও জরুরি, এসইও ফ্রেন্ডলি কনটেন্ট জরুরি। এই এসইও ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটি সেক্টর।ডিজিটাল মার্কেটিং এর গুরুত্ব কিংবা ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং কেমন তা বলে শেষ করা যাবে না। তাই ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিংও হবে অন্যতম একটি পেশা।


     বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম 

    রাইডএনড্রপ ( RIDENDROP ) অ্যাপ এটি বাংলাদেশি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান। দক্ষিণ আফ্রিকায় যাতায়ত সুবিধার্থে চালু করতে যাচ্ছে অনলাইন ভিত্তিক ট্যাক্সি সার্ভিস । এই সেবা গ্রহণের পদ্ধতিটি অত্যন্ত সহজ। গুগল প্লে স্টোর থেকে RideNDrop অ্যাপটি ইনস্টল করে ফোন নম্বর দিয়ে সাইনআপ করতে হবে। 

    কোথাও যাওয়ার জন্য নিকটবর্তী চালককে অর্ডার করলেই কয়েক মিনিটের মধ্যে সামনে এসে হাজির হবে Ridendrop এর ট্যাক্সি। গন্তব্যে পৌঁছার পর ভাড়া পরিশোধ করতে হবে।

    দক্ষিণ আফ্রিকার সবচেয়ে জনপ্রিয় SWT Travel এর প্রতিষ্ঠাতা জনগণের সেবায় নিয়োজিত এই ট্রাভেলসের বিস্ময়কর অবদান Ridendrop অ্যাপ। বিশ্বব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয় ট্রাভেল SWT Travel সদরদপ্তর জোহানেসবার্গ। 

    Ridendrop এই সাধারণ অ্যাপের মাধ্যমে যেকেউ তার স্মার্টফোন থেকেই ট্যাক্সি সার্ভিস নেয়ার সুবিধা পেয়ে থাকবে । এখন আসি ফ্রী রাইড এর ব্যাপারে।

    ১. প্রথমে অ্যাপ টি Google Play Store থেকে নামিয়ে নিতে হবে।

    ডাঊনলোড লিঙ্কঃ https://ridendropuser.page.link/t5adzPXGy9Wizg749

    ২. এরপর একটি Account খুলতে হবে অ্যাপ এ মোবাইল নাম্বার দিয়ে ।মোবাইল এ কোড পাঠাবে তা দিয়ে ভেরিফাই করলে হবে।

    ৩. এর পর অ্যাপ মেনু থেকে 'Refer and earn' অপশন এ গিয়ে লিংক শেয়ারের মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এবং ইনকাম করা টাকা দিয়ে আপনি ফ্রি রাইড করতে পারবেন।

    গেম খেলে টাকা আয় 


    গেম খেলে টাকা আয় করুন
    আ্যপটিতে
    জয়েন করলেই পাবেন থেকে $0.01--$5 ডলার।

    উইথড্র করতে পারবেন জয়েন করার সাথে সাথে ইনস্ট্যান্ট। তাই দেরি না করে এখনি কাজ শুরু করুন।

    Link: https://cats.garden/share/index.html?branch=Z36235SK

    প্রথমে লিংকে ক্লিক করে GET UP NOW a ক্লিক করে আ্যপটিত ডাউনলোড করুন।
    তারপরে অ্যাপটিতে লগইন করুন।
    রেফার কোড Z36235SK
    রেফার কোড ব্যবহার করুন(Z36236Sk ) এখানে একটা ক্লিক করলে রেফার কোড কপি হয়ে যাবে।
    বিশেষ দ্রষ্টব্য: রেফার কোড ব্যবহার না করলে জয়েনিং বোনাস পাবেন না।
    তারপরে সেটিং এ গিয়ে ইমেইল এড করে ভেরিফাই করে নিন।
    আপনার জিমেইলে কনফার্মেশন যাবে। সেটা কনফার্ম করে নিন। তারপর অ্যাপটিতে আবার ঢুকুন।


    মোবাইল দিয়ে টাকা আয় 

    মোবাইল দিয়ে আমরা বিভিন্ন ভাবে টাকা ইনকাম করতে পারি। তার মধ্যে একটি হল অনলাইন মার্কেটিং। যা একটি জনপ্রিয় টাকা আয় করার একটু উপায় হিসেবে পরিচিত। আমরা আজকে আমাদের এই পোস্টটি তৈরি করেছি অনলাইন মার্কেটিং নিয়ে। আশা করি আপনারা পুরো পোস্টটি ধৈর্য্য সহকারে পড়বেন তাহলে অনলাইন মার্কেটিং কি সে সম্পর্কে আপনারা সব কিছু জানতে পারবেন।

    অনলাইন মার্কেটিং হালের টাকা আয় করার জনপ্রিয় একটি উপায়। আজকাল ফেসবুক কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে হাজারো মার্কেটপ্লেস। এসব কিন্তু সাধারণ দশটা ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের মত নয়। ফেসবুকে ইদানীং কালে ড্রেস, জুয়েলারি, মেকআপ সামগ্রী, হ্যান্ডিক্রাফট, বই ইত্যাদির জন্য হাজারো অনলাইন শপ গড়ে উঠেছে। ফেসবুকে এসব অনলাইন মার্কেটিং পেজ বা গ্রুপে বিভিন্ন পণ্যের ছবি, বিবরণ, সাইজ ও দাম দেয়া থাকে। মেসেজ দিয়ে বা কমেন্টে গ্রাহকেরা তাদের পছন্দমত পণ্য অর্ডার করে। কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানে অর্ডার করার সময়ই ক্রেডিট কার্ড, বিকাশ এর মত অন্যান্য পদ্ধতিতে টাকা পরিশোধ করে দিতে হয়, আবার কিছু প্রতিষ্ঠানে ক্রেতাদের ফরমায়েশ অনুযায়ী যথাসময়ে ডেলিভারির সময়ে টাকা পরিশোধের ব্যবস্থা থাকে। এভাবে ধীরে ধীরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি পরিচিতি পায় এবং টাকা আয় করার রাস্তাটাও সরু থেকে চওড়া হতে শুরু করে। অনলাইন জিনিসপাতি বিক্রির জন্য “ফেসবুক শপ” নামের অসাধারণ একটা অ্যাপ ও রয়েছে। আপনার অনলাইন মার্কেটিং এর ছোটখাটো কোনো ওয়েবসাইট থাকলে আপনি এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন। এই অ্যাপের ২টি ভার্সনের মধ্যে ফ্রি ভার্সনটি লিমিটেড, অন্যদিকে পেইড ভার্সনে রয়েছে এমন অনেক সুবিধা যা ফ্রি ভার্সনে অনুপস্থিত।


    Tag:টাকা ইনকাম apps, অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১, বাংলাদেশি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম ,গেম খেলে টাকা আয়, মোবাইল দিয়ে টাকা আয়, মোবাইলে অনলাইনে আয় 



    0/Post a Comment/Comments

    Previous Post Next Post
    আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে ক্লিক করুন
    chrome-extension://oilhmgfpengfpkkliokdbjjhiikehfoo/img/semstorm-32.png