চিঠি - পত্র লিখন - তােমার কলেজে অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পর্কে বন্ধুকে একটি পত্র লিখ

 
স্কুলের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রতিবেদন, বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা চিঠি, বন্ধুকে পত্র লিখন,

এখানে
       
       

    তােমার কলেজে অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পর্কে বন্ধুকে একটি পত্র লিখ 

    সুপ্রিয় মাহিম , শুভেচ্ছা রইল । আমাদের কলেজে ২৫ বৈশাখে অনুষ্ঠিত হলাে রবীন্দ্র জয়ন্তী । ২৫ বৈশাখ আমাদের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের একটি অবিস্মরণীয় দিন । রবীন্দ্র জয়ন্তীর বর্ণাঢ্য আয়ােজনের মধ্যে ছিল আলােচনা , রবীন্দ্র রচনা পাঠ , রবীন্দ্রনাথের গান , আবৃত্তি , কৌতুক , অভিনয় ও নাটক । 

    স্কুলের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রতিবেদন

    আমরা এ ব্যাপারে তৈরি ছিলাম আগে থেকেই । কবিগুরুর বহুমুখী প্রতিভার বিভিন্ন দিক যতটা সম্ভব তুলে ধরাই ছিল আমাদের অনুষ্ঠানের লক্ষ্য । 

    বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

    কলেজ প্রাঙ্গণে সুসজ্জিত মঞ্চে খরতাপী বৈশাখের পড়ন্ত বিকেলে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয় এবং শেষ হয় রাত দশটায় । অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আমাদের কলেজের মাননীয় অধ্যক্ষ জনাব ..............। 

    বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা চিঠি

    প্রথম পর্বে ছিল রবীন্দ্রনাথের জীবন ও সাহিত্যকর্মের উপর আলােচনা ও রবীন্দ্র রচনা থেকে পাঠ । এতে অংশগ্রহণ করেন কলেজের কয়েকজন ছাত্র ও শিক্ষক । সন্ধ্যা নামার আগেই এ পর্বের সমাপ্তি হয় । 

    বন্ধুকে পত্র লিখন

    তারপর শুরু হয় আবৃত্তি ও গানের অনুষ্ঠান । আবৃত্তি ও গানে অংশগ্রহণ করে কলেজের ছাত্রছাত্রীবৃন্দ । সাবরিনা সুলতানার কৌতুক , শিরিন তাসনিম এর অভিনয় ও মেহের নিগারের গান ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করে । আমিও আবৃত্তিতে অংশ নিয়েছিলাম । অনুষ্ঠানের শেষ আকর্ষণ ছিল নাট্যানুষ্ঠান । এতে অভিনীত হয় রবীন্দ্রনাথের ‘ বিসর্জন ' নাটক । নাটকটির সার্থক অভিনয় যবনিকা পড়ার পরেও অনুষ্ঠানের অপূর্ব মােহনীয় আবেশ দর্শকদের মােহমুগ্ধ করে রাখে । সব মিলিয়ে অনুষ্ঠানটি ছিল অসামান্য । দেখা হলে আরও কথা হবে , প্রীতি রইল ।

    Tags: স্কুলের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রতিবেদন, বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা চিঠি, বন্ধুকে পত্র লিখন,